'৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু-332826 | রাজনীতি | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

শুক্রবার । ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৫ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৭ জিলহজ ১৪৩৭


'৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতাযুদ্ধের সকল দিকনির্দেশনা দিয়েছিলেন'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৩১



'৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতাযুদ্ধের সকল দিকনির্দেশনা দিয়েছিলেন'

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ৭ মার্চের ভাষণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সকল দিকনির্দেশনা দিয়েছিলেন। ৭ মার্চের পর সারা দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি শুরু করে। ১৯৭১ সালে আমরা জয়দেবপুরে ১৯ মার্চ প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ যুদ্ধ গড়ে তুলেছিলাম। তখন সারা দেশে স্লোগান ওঠে জয়দেবপুরের পথ ধর বাংলাদেশ স্বাধীন কর বলে তিনি মন্তব্য করেন।

আজ সকালে সেগুন বাগিচাস্থ শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি চিত্রনায়ক ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঐতিহাসিক সাতই মার্চের আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজিত রায় নন্দী, সাধারণ সম্পাদক ফাল্গুনি হামিদ, এম এ মতিন প্রমুখ।

সভায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক ৭ মার্চের ভাষণ সম্পর্কে বলেন, ১৯৫২ সালের পর পাক হানাদার বাহিনীর অত্যাচার-নির্যাতনের বিরুদ্ধে ১৯৫৪ সাল থেকে ১৯৭১ সালের ধারাবাবিক স্বাধীকার আন্দোলন সংগ্রামের ঘটনা বর্ণনা করে বলেন, স্বাধীনতা এক দিনে হয়নি। ৭ মার্চের ভাষণে স্বাধীনতার সব দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সুজিত রায় নন্দী বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠাই হোক ৭ মার্চের শপথ।

সাধারণ সম্পাদক ফাল্গুনি হামিদ বলেন, ৭ মার্চ ভাষণ আমাদের শক্তি যোগায় সামনে এগিয়ে যাওয়ার। সভাপতির বক্তব্যে চিত্রনায়ক ফারুক বলেন, যারা বাংলাদেশের বিরোধিতা করেছিলে তাদের সকলের বিচার হওয়া উচিত।

মন্তব্য