kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিএনপির সাহস নেই, সততাও নেই : ওবায়দুল কাদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৬ ১৪:৪১



বিএনপির সাহস নেই, সততাও নেই : ওবায়দুল কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় নির্বাচন বর্জন করে, আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে, যাঁরা আরেকটি এক-এগারোর স্বপ্ন দেখছেন, তাঁদের এই স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে। বাংলার মাটিতে তা কখনো বাস্তবায়ন হবে না।

আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে ৭ মার্চ আওয়ামী লীগের জনসভা সফল করতে ছাত্রলীগের মতবিনিময় সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকে পত্রিকায় দেখলাম বিএনপি কাউন্সিলের জন্য অনুমতি পেয়েছে। কত বড় দেউলিয়া এ দল! কিসের অনুমতি। রাজনীতিতে সততা লাগে, সাহস লাগে, কমিটমেন্ট লাগে। বিএনপির সাহস নেই, সততাও নেই। সাহস ও সততার সংকট আছে বলে খালেদা জিয়া পিছিয়ে আছেন। সততায় এগিয়ে আছেন বলেই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা এগিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, কাউন্সিলের ভেন্যু আসলে বিএনপি নিজেরাই ঠিক করতে পারেনি। সরকার যদি বাধা দিত, ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে কাউন্সিলের অনুমতি পেত কেমন করে? বাধা আসলে সরকার না, বাধা হচ্ছে বিএনপি। তাদের মধ্যে এখন নানা মত, নানা পথ। তাই তারা মনস্থির করতে পারেনি- কোথায় কাউন্সিল করবে।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীদের মনোনয়ন জমায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাত শ'র মধ্যে শুনলাম ১৮৪ ইউনিয়ন পরিষদে বাধা দেওয়া হয়েছে। আসলে কি জানেন, বাধা কেউ দেয়নি। আসল কথা তারা নিজেরাই প্রার্থী খুঁজে পায়নি। প্রার্থী না পেলে আমরা কোথা থেকে প্রার্থী খুঁজে বের করে দেব। প্রার্থী সংকটে ভুগছে তারা। আর প্রার্থী কেউ দিয়ে থাকে, সেটা অগণতান্ত্রিক। বাধা কোথায় কোথায় দিয়েছে, সেটা আমাদের সুনির্দিষ্ট করে বলুন। কেন্দ্রীয়ভাবে বাধা দেওয়ার নির্দেশ শেখ হাসিনার নেই। স্থানীয়ভাবে কোথাও বাধা দেওয়ার ঘটনা ঘটলে সেটা স্পষ্ট উপস্থাপন করতে পারেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার উন্নয়ন-অর্জনের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা বিএনপির রাজনীতিতে সংকটের ছায়া ফেলেছে।

ছাত্রলীগের নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নতুন কমিটিকে আমি অভিবাদন জানাচ্ছি।

ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এনামুল হক শামীম, ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আবিদ আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি সৈয়দ মিজানুর রহমান, দক্ষিণের সভাপতি বায়েজিদ আহমেদ খান প্রমুখ। মতবিনিময় সভা পরিচালনা করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।


মন্তব্য