kalerkantho


ব্যারিস্টার মইনুলকে বিএসএমএমইউতে চিকিৎসার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:০৪



ব্যারিস্টার মইনুলকে বিএসএমএমইউতে চিকিৎসার নির্দেশ

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। ফাইল ছবি

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে আদালতে আনা-নেওয়ার সময় যথাযথ নিরাপত্তা দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে একটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে তাঁকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিত্সার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল সোমবার এ আদেশ দেন। ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের সহধর্মিণী সাজু হোসেনের করা রিট আবেদনে এ আদেশ দেওয়া হয়। আদালতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুর রহিম ও মাসুদ রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।  

গত ১৬ অক্টোবর এক টেলিভিশন টক শোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে অশোভন মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। এ ঘটনায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন আদালতে একাধিক মানহানির মামলা হয়। এসব মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও জারি হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে দায়ের করা মামলায় ২২ অক্টোবর গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পরপরই ওই রাতেই আ স ম আবদুর রবের ঢাকার বাসা থেকে পুলিশ ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করে। 

এরপর ২৩ অক্টোবর তাঁকে ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ আদালতে তাঁর জামিনের আবেদন করা হলে আদালত তা খারিজ করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। সেই থেকে তিনি কারাবন্দি। এরই মধ্যে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে ২০টি এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে রংপুরে করা মামলায় গত ৩ নভেম্বর তাঁকে রংপুর কারাগারে নেওয়া হয়। সেখান থেকে রংপুর আদালতে হাজির করা হলে তাঁর ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।



মন্তব্য