kalerkantho


জাবিতে ভর্তি পরীক্ষা

মাদরাসা ছাত্রদের আলাদা মেধা তালিকা কেন অবৈধ নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ নভেম্বর, ২০১৮ ১৮:১৬



মাদরাসা ছাত্রদের আলাদা মেধা তালিকা কেন অবৈধ নয়

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে কলা ও মানবিক অনুষদের (সি ইউনিট) স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় মাদরাসা শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা মেধা তালিকা তৈরি করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। জাবি ভিসি, রেজিস্টার, একাডেমিক কাউন্সিলের চেয়ারম্যান, ভর্তি কমিটির সচিব এবং কলা ও মানবিক অনুষদের ডিনকে এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। বিশেষ বার্তা বাহকের মাধ্যমে এ আদেশ পাঠাতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ রবিবার এ আদেশ দেন। সাজ্জাদুল ইসলামসহ তিন শিক্ষার্থীর করা এক রিট আবেদনে এ আদেশ দেন আদালত। রিট আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার ইমরান এ সিদ্দিক ও অ্যাডভোকেট আবু রায়হান।

আগামী ১৮ নভেম্বর সি ইউনিটে মৌখিক পরীক্ষার তারিখ নির্ধারিত রয়েছে। এরইমধ্যে লিখিত পরীক্ষার ভিত্তিতে জাবি কর্তৃপক্ষ মেধা তালিকা তৈরি করেছে। সেখানে মাদরাসা শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা তালিকা করা হয়েছে। এই আলাদা তালিকা করার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করা হয়।

আদেশের পর ব্যারিস্টার ইমরান এ সিদ্দিক সাংবাদিকদের বলেন, আইন অনুসারে উচ্চ মাধ্যমিকের ক্ষেত্রে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সমমানের অধিকারী। কিন্তু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষা ‘সি’ ইউনিটে (কলা ও মানবিক অনুষদ) মেধা তালিকায় মাদরাসা শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদা ক্যাটাগরি তৈরি করা হয়েছে। যা বৈষম্যমূলক ও সংবিধান বিরোধী।



মন্তব্য