kalerkantho


প্রায় ১২ শ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগ

ডেসটিনি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার বিচার চলতে বাধা কাটল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ অক্টোবর, ২০১৮ ০৪:০৫



ডেসটিনি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার বিচার চলতে বাধা কাটল

প্রায় ১২ শ' কোটি টাকা অর্থপাচারের অভিযোগে দুদকের একটি মামলার বিচার কার্যক্রম বাতিল চেয়ে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেডের পরিচালক লে. কর্নেল (অব.) দিদারুল আলমের করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। ফলে ডেসটিনির ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলার বিচার চলতে বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার এক রায়ে দিদারুল আলমের আবেদন খারিজ করে দেন। দুদকের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ মামুন মাহবুব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রোনা নাহরিন এবং এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে ২০১৩ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড ও ডেসটিনি ট্রি প্লানটেশনের ১১ শ' ৭৮ কোটি ৬১ লাখ টাকা স্থানান্তর ও হস্তান্তরের মাধ্যমে মানি-লন্ডারিংয়ের অভিযোগে ২০১২ সালের ৩১ জুলাই কলাবাগান থানায় মামলা করে দুদক। এ মামলায় দিদারুল আলমসহ ২২ জনকে আসামি করা হয়।

বর্তমানে ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ আদালতে মামলাটি বিচারাধীন। এই মামলার কার্যক্রম বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করলে আদালত ওই বছরের ১ মার্চ রুল জারি করেন। ওই রুলের ওপর শুনানি শেষে গতকাল তা খারিজ করে রায় দেন হাইকোর্ট।



মন্তব্য