kalerkantho


জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা

অসুস্থতার কারণে খালেদাকে আদালতে হাজির করা হয়নি

যুক্তিতর্ক শুনানি আবার পিছিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২২ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:৪৮



অসুস্থতার কারণে খালেদাকে আদালতে হাজির করা হয়নি

রাজধানীর বকশি বাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে বিচারাধীন জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হাজির করা হয়নি। ফলে এ মামলার যুক্তিতর্ক শুনানির তারিখ আবারো পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে তাঁর জামিনের মেয়াদও বাড়ানো হয়েছে।

আজ রবিবার ঢাকার বিশেষ জজ ৫-এর আদালতে কারাগার থেকে খালেদাকে আদালতে হাজির করে যুক্তিতর্ক শুনানি গ্রহণের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু যুক্তিতর্ক শুনানি না হলেও আদালত জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে আগামী ১০ মে দিন ধার্য করেছেন। ওইদিন খালেদাকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৩ মার্চ রাজধানীর বকশি বাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গত ২৮ ও ২৯ মার্চ খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করার জন্য কারা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন। কিন্তু ওইদিন হাজির না করায় আবার গত ৫ এপ্রিল তারিখ ধার্য করা হয়। ওই তারিখেও খালেদা জিয়াকে অসুস্থতার কারণে হাজির করা হয়নি। গতকালও কারা কর্তৃপক্ষ আদালতকে জানিয়েছে, খালেদা জিয়া অসুস্থ বিধায় হাজির করা হয়নি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠানোর পর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় তাঁকে আদালতে আর হাজির করা হয়নি।

গতকাল আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, 'খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় তাঁকে আদালতে হাজির করা হয়নি। পক্ষান্তরে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন। আদালত জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে দেন।

উল্লেখ্য, এই আদালতেই জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার বিচার হয়। গত ৮ ফেব্রুয়ারি এক রায়ে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন একই আদালত। এরপর থেকে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছেন খালেদা জিয়া।



মন্তব্য