kalerkantho


সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন

বিএনপি-জামায়াত পন্থী আইনজীবীদের পৃথক প্যানেল ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ মার্চ, ২০১৮ ০৩:৪৭



বিএনপি-জামায়াত পন্থী আইনজীবীদের পৃথক প্যানেল ঘোষণা

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সরকার সমর্থক আইনজীবীরা একক প্যানেল দিলেও বিরোধে জড়িয়ে বিএনপি-জামায়াতপন্থী আইনজীবীরা পৃথক দুটি প্যানেল ঘোষণা করেছেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় আইনজীবী নেতারা এবারের নির্বাচনে সমিতির বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন ও সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুবউদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে প্যানেল ঘোষণা করেছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের নেতৃত্বে পাল্টা প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। এনিয়ে গতকাল সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকারের চেম্বারের সামনে উভয়পক্ষে ধাক্কাধাক্কির ঘটনাও ঘটেছে। বিরোধ নিরসনে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের জরুরি সভা ডাকা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকেল চারটায় সমিতি ভবনে এ সভা হবে।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাইলে সমিতির বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন কালের কণ্ঠকে জানান, তিনি অসুস্থ। তাই কথা বলতে পারবেন না। 

তবে বিদ্রোহী প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার কালের কণ্ঠকে বলেন, ব্যক্তিগতভাবে আমি প্রার্থী হতে চাই না। একই ব্যক্তিকে বারবার মনোনয়ন দেওয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের দেখা দরকার। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাবন্দি। তার মুক্তির জন্য যারা আন্দোলন সংগ্রাম করছেন তাদের প্রার্থী করা হয়নি। 

তৈমুর আলম খন্দকারের নেতৃত্বাধীন প্যানেলে কার্যকরি সদস্য পদে অ্যাডভোকেট আবু হানিফের নাম থাকলেও তিনি কালের কণ্ঠকে জানান, এ প্যানেল সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না। এ রকম আরো কয়েকজন আইনজীবীও একই কথা জানান।

আগামী ২১ ও ২২ মার্চ দুদিনব্যাপি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। ১৪ সদস্যের কার্যকরি কমিটির এ নির্বাচন উপলক্ষ্যে সরকার সমর্থক আইনজীবীরা সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুনকে সভাপতি ও অ্যাডভোকেট শেখ মো. মোরশেদকে সম্পাদক প্রার্থী করে রবিবার সাদা প্যানেল ঘোষণা করেছেন সরকার সমর্থক আইনজীবীরা।এ প্যানেলের সদস্যরা গত কদিন ধরে প্রচারণা চালাচ্ছেন। 

অন্যদিকে মঙ্গলবার রাতে বিএনপিপন্থী সিনিয়র আইনজীবীরা বর্তমান সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীনকে সভাপতি ও সম্পাদক ব্যারিষ্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকনকে সম্পাদক প্রার্থী করে নীল প্যানেল ঘোষণা করে। এই প্যানেল দেখে গতকাল ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিএনপি-জামায়াতপন্থী একদল আইনজীবী। এ বি এম রফিকুল হক তালুকদার রাজা, শরীফ ইউ আহমেদসহ বেশ কজন আইনজীবী সমিতি ভবনের দিবতীয়তলায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার জমিরউদ্দিন সরকারের চেম্বারের সামনে বিক্ষোভ করেন।

এ সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পরে ক্ষুব্ধ আইনজীবীদের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে পৃথক প্যানেল ঘোষণা করা হয়। সমিতি ভবনে ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম কার্যালয়ে এই প্যানেল ঘোষণা করেন সমিতির সাবেক সহসম্পাদক এবিএম রফিকুল হক তালুকদার রাজা। তিনি নিজেকে সম্পাদক প্রার্থী ঘোষণা করেন।


মন্তব্য