kalerkantho


স্বেচ্ছাসেবকদল সভাপতি সাত দিনের রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক   

৮ মার্চ, ২০১৮ ০২:১০



স্বেচ্ছাসেবকদল সভাপতি সাত দিনের রিমান্ডে

রাজধানীর প্রেসক্লাবের সামনে মানবনন্ধনের পর গ্রেপ্তার স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবুর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম সাব্বির ইয়াসির মাহমুদ চৌধুরী জামিনের আবেদন নাকচ করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। শাহাবাগ থানায় পুলিশের কাজে বাধা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে দায়ের হওয়া একই মামলায় গ্রেপ্তার যুবদল ও ছাত্রদলের ১১ নেতা-কর্মীর তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

এর আগে তাদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেককে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। শফিউল বারীকে ১০ দিন ও অপর এগারোজনের ৭ দিন করে রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়। 

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীর প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করে বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা না করে কর্মসূচি পালন করতে বললে আসামিরা বিনা উসকানিতে পুলিশের সঙ্গে বাকযুদ্ধে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে নেতাকর্মীরা হত্যার উদ্দেশ্যে কর্তব্যরত পুলিশকে ইটপাটকেল ছুঁড়তে থাকে। আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ওই ঘটনার পেছনে কারা ইন্ধন যুগিয়েছে, তাদের সম্পর্কে তথ্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে। সুষ্ঠ তদন্তের স্বার্থে প্রার্থিত রিমান্ড মঞ্জুর করা হোক।

আদালতে এই আবেদনে বিপরীতে আসামিদের জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক ওই আদেশ দেন।

অন্য রিমান্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ঢাকা মহানগর উত্তরের ১৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রফিক দেওয়ান, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন, ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আকতার হোসেন, ছাত্রদলের আপ্যায়ন সম্পাদক আতিকুর রহমান, ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মামুন হোসেন, ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক হাফিজুর রহমান, সবুজবাগের ৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রদল সম্পাদক আজিজ আহমেদ, কুমিল্লা-দাউদকান্দি থানা ছাত্রদলের সহ-সম্পাদক রকিবুল ইসলাম, গৌরীপুর কলেজ ছাত্রদলের সম্পাদক খন্দকার ইমন আহমেদ, দাউদকান্দি থানা ছাত্রদলের সদস্য সাইফুল ইসলাম।


মন্তব্য