kalerkantho


সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদকের জামিন

খোকনকে গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০২:১৪



সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদকের জামিন

প্রতীকী ছবি

গাড়ি ভাংচুর ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগের মামলায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. জয়নুল আবেদীন ও সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুবউদ্দিন খোকন এবং বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে শাহবাগ ও রমনা থানায় দায়ের করা তিনটি মামলায় ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকনকে গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

হাইকোর্টের পৃথক দুটি বেঞ্চ গতকাল বৃহষ্পতিবার এ আদেশ দেন। বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথের হাইকোর্ট বেঞ্চ জয়নুল আবেদীনের জামিন মঞ্জুর করেন। তাকে চার সপ্তাহের জন্য জামিন দেওয়া হয়েছে। তারপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, সমিতির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট অজি উল্লাহ, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল ও ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমেদের হাইকোর্ট বেঞ্চ ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব ও ব্যারিস্টার সানজিদ সিদ্দিকী।

গত ৩০ জানুয়ারি হাইকোর্ট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও প্রিজন ভ্যান থেকে বিএনপির দুই কর্মীকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় পুলিশ শাহবাগ ও রমনা থানায় পৃথক তিনটি মামলা করে। এসব মামলায় জয়নুল আবেদীন ও মাহবুবউদ্দিন খোকনকে আসামি করা হয়েছে।

ঘটনা চারদিন আগে থেকে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন আমেরিকা অবস্থান করছেন-একথা বলে তার সহধর্মিনী আখতারুন্নেছা আতিয়ার হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। এ রিট আবেদনে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন দেশে ফিরলে তাকে গ্রেপ্তার বা হয়রানি না করার নির্দেশ দেন আদালত। স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি), ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার, শাহবাগ ও রমনা থানার ওসিসহ ১১ বিবাদীর প্রতি এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একমাসের জন্য এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এসময়ের মধ্যে তাকে দেশে ফিরে জামিনের আবেদন করতে হবে।    



মন্তব্য