kalerkantho


উত্তরা আধুনিক মেডিক্যালের ৫৭ শিক্ষার্থীর বিষয়ে আদেশ আগামীকাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:৩৬



উত্তরা আধুনিক মেডিক্যালের ৫৭ শিক্ষার্থীর বিষয়ে আদেশ আগামীকাল

সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে চলতি শিক্ষাবর্ষে উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হওয়া ৫৭ জন শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আবেদনের শুনানি শেষ হয়েছে। এ বিষয়ে আদেশের জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার দিন ধার্য করেছেন আপিল বিভাগ।

আজ সোমবার সকালে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন। এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তিকৃত ৫৭ শিক্ষার্থীর একাডেমিক কার্যক্রমে ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে ওই কলেজে  ‘আগে আসলে আগে ভর্তির সুযোগ’ এই পদ্ধতিতে ভর্তির প্রক্রিয়া কেন অবৈধ হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষকে আগামী ১০ দিনের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

চলতি শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস প্রথম বর্ষে ভর্তিতে অনিয়ম ও সরকারি নীতিমালা অনুসরণ না করার অভিযোগে ওই কলেজে ভর্তিবঞ্চিত এক প্রার্থীর অভিভাবক ২ জানুয়ারি রিটটি দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজে তড়িঘড়ি করে ১৭ ডিসেম্বর এক ঘণ্টার মধ্যেই ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয় বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। এই মেডিক্যাল কলেজে মোট আসন ৯০টি। এর মধ্যে বিভিন্ন কোটায় ১৮টি। আর সাধারণ কোটায় ৭২টি আসন। এর মধ্যে প্রথম মেধাতালিকায় প্রথম দিন ১৫টি আসনে ভর্তি হয়ে যান শিক্ষার্থীরা, যার ফল দেওয়া হয় ১৪ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৫টায়। বাকি থাকা ৫৭ আসনে দ্বিতীয় তালিকায় (সাধারণ কোটায়) ভর্তির ক্ষেত্রে সরকারি আদেশ উপেক্ষা করে ‘আগে এলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে ভর্তি করা হয়। 



মন্তব্য