kalerkantho


দলীয় সাংসদকে ফেসবুকে স্ট্যাটাস

বিনা ভোটের এমপি বলায় প্রেসিডিয়াম সদস্য বিচারের মুখোমুখি

আদালত প্রতিবেদক   

২৮ নভেম্বর, ২০১৭ ২৩:৪৫



বিনা ভোটের এমপি বলায় প্রেসিডিয়াম সদস্য বিচারের মুখোমুখি

প্রতীকী ছবি

জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় হুইপ ও জাতীয় পার্টির সিলেট-৫ আসনের সাংসদ (এমপি) সেলিম উদ্দিনকে বিনা ভোটের এমপি ও জাতীয় পাটির শত্রু বলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এ টি ইউ তাজ রহমান বিচারের মুখোমুখি। আজ মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট আইনের সংশ্লিষ্ট ধারায় চার্জ গঠন করে বিচার শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরনের উক্তিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পরিচালিত সরকার দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও সংসদ সদস্য হিসাবে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে অভিযোগ এনে চলতি বছরের ২২ মে জাতীয় পার্টির প্রার্থী সেলিম উদ্দিন (এমপি) বাদী হয়ে সিলেট জকিগঞ্জ আদালতে ওই নালিশী মামলা করেন।

ওইখানকার আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের পর ঢাকায় বাংলাদেশ সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে মামলাটি বিচারের জন্য পাঠানো হয়। আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ আমলে নেওয়ার পর চার্জ গঠনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়।

শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনালের বিচারক সাইফুল ইসলাম আসামির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনের ৫৭ (১) ও (২) ধারায় চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেন।

ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি এসএম নজরুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, শুনানিকালে বাদী ও আসামি ট্রাইব্যুনালে হাজির ছিলেন। আনুষ্ঠানিকভাবে চার্জ গঠনের আগে আসামিকে অভিযোগ পড়ে শোনালে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। এর আগে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি চেয়ে করা আবেদন নাকচ করেন বিচারক।

নথি সূত্রে জানা গেছে, মামলা দায়েরের পর সিলেট আদালতে বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে আনা অভিযোগ তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিল করতে সংশ্লিষ্ট থানাকে নির্দেশ দেয়। ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় জকিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সৈয়দ ইমরুল তারেক গত ২০ আগস্ট আসামির বিরুদ্ধে প্রতিবেদন দাখিল করে।

বলা হয়, তাজ রহমান তার ফেইসবুক আইডিতে সেলিম উদ্দিন এমপিকে জাতীয় পার্টির শত্রু এবং বিনা ভোটের এমপি বলে স্ট্যাটাস দেন। পর দিন একটি দৈনিক পত্রিকায় সমাজের নিকৃষ্ট ব্যক্তিদের তালিকায় রয়েছেন মর্মে বিবৃতি দেন। তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ পূর্বক ঘটনার সার্বিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।


মন্তব্য