kalerkantho


বেগম সম্পাদকের বাড়ি রক্ষার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৮ জুলাই, ২০১৭ ০৩:১৩



বেগম সম্পাদকের বাড়ি রক্ষার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

সওগাত পত্রিকার সম্পাদক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, বেগম পত্রিকার সম্পাদক নূরজাহান বেগম এবং সাহিত্যিক রোকনুজ্জামান খান দাদা ভাইয়ের স্মৃতিবিজড়িত ১২৭ বছরের পুরনো বাড়ি ‘নাসির উদ্দিন স্মৃতি ভবন’ হেরিটেজ হিসেবে সংরক্ষণ করার নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। নূরজাহান বেগমের মেয়ে ফ্লোরা নাসরিন খান এ রিট আবেদন করেছেন।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র ও সংস্কৃতি সচিব, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান, প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের মহাপরিচালক, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার ও গেণ্ডারিয়া থানার ওসিকে বিবাদী করা হয়েছে।

এর আগে ভবনটি রক্ষা করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশি্লষ্টদের কাছে গত ১২ জুলাই লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। ফ্লোরা নাসরিন খানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ নোটিশটি পাঠিয়েছিলেন। নোটিশের জবাব না পেয়ে রিট আবেদন করা হয়।

রিট আবেদনে বলা হয়, সওগাত সম্পাদক নাসির উদ্দিন, বেগম সম্পাদক নূরজাহান বেগম এবং শিশুসাহিত্যিক রোকনুজ্জামান খান দাদা ভাই গেণ্ডারিয়ার নারিন্দা এলাকার শরত্গুপ্ত রোডের বাড়িতে বসবাস করতেন, যেটি ‘নাসির উদ্দিন স্মৃতি ভবন’ নামে পরিচিত। ১৮৯০ সালের দিকে কিশোরগঞ্জের কোনো এক হিন্দু জমিদার এ বাড়ি নির্মাণ করেন। তাই ১২৭ বছরের এ বাড়ি হেরিটেজ হিসেবে সংরক্ষণ করা প্রয়োজন। সম্প্রতি নূরজাহান বেগমের ছোট জামাই বাড়ি ভেঙে বহুতল ভবন নির্মাণের চেষ্টা করছেন। বিষয়টি জানিয়ে বাড়িটি সংরক্ষণের জন্য ফ্লোরা খান গত ৬ জুলাই প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে আবেদন করেন। কিন্তু এতে সাড়া দেয়নি প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর। তাই সংবিধানের ২৪ অনুচ্ছেদ অনুসারে বাড়িটি সংরক্ষণ করা প্রয়োজন।

নূরজাহান বেগম বাংলাদেশে নারী সাংবাদিকতার অগ্রদূত ও সাহিত্যিক। তিনি সওগাত পত্রিকার সম্পাদক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিনের মেয়ে। তিনি ভারত উপমহাদেশের প্রথম নারী সাপ্তাহিক ‘বেগম’ পত্রিকার সূচনালগ্ন থেকেই এর সম্পাদনার কাজে যুক্ত ছিলেন। তিনি ছয় দশক ধরে বেগম পত্রিকার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।


মন্তব্য