kalerkantho


পরিচয় গোপনের মামলায় রোহিঙ্গা নারী কারাগারে, বাংলাদেশি রিমান্ডে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৭ ২৩:৩৯



পরিচয় গোপনের মামলায় রোহিঙ্গা নারী কারাগারে, বাংলাদেশি রিমান্ডে

অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করে পরিচয় গোপনের মামলায় এক রোহিঙ্গা নারীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। একই মামলায় অপর এক বাংলাদেশির এক দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। আজ শুক্রবার ঢাকার মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপু এই আদেশ দেন।  

আসামিরা হলেন- রোহিঙ্গা নারী আছিয়া বেগম ওরফে মাকসুদা চৌধুরী (৩১) ও বাংলাদেশি আবুল কাশেম চৌধুরী (৪৭)।

আদালত সূত্রে জানা যায়,  আদালতে এদিন এই দুজনকে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুল ইসলাম। রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, গতকাল বৃহস্পতিবার শেরেবাংলা এলাকায় বিভাগীয় ভিসা পাসপোর্ট অফিসে আসেন এই দুজন। নিজেদের স্বামী-স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানিয়েছেন, পাসপোর্ট অফিসের দালাল এস এস শাহজাহান টাকার বিনিময়ে রোহিঙ্গা নারীর পাসপোর্ট করে দেওয়ার কাজ নেন। এই নারী কক্সবাজার সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে বাংলাদেশি দাবি করেছেন।

রিমান্ড আবেদনে আরও বলা হয়, দুজন আসামি পরিচয় গোপন করে নকল জাল নিকাহনামা তৈরি করেছেন। ঘটনার রহস্য উদ্ঘাটনের জন্য আসামিদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ জরুরি।

শুনানি শেষে আদালত রোহিঙ্গা নারী আছিয়া বেগমকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আর বাংলাদেশি নাগরিক কাশেমকে এক দিন রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি দেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, পাসপোর্ট অফিসের দালাল শাহজাহান মেসার্স শেখ (এইচ) ব্রাদার্সের মালিক।


মন্তব্য