kalerkantho


রিমান্ড শেষে ৭ পরিবহন শ্রমিক কারাগারে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৭ ১৯:৪৯



রিমান্ড শেষে ৭ পরিবহন শ্রমিক কারাগারে

সম্প্রতি দেশজুড়ে পরিবহন ধর্মঘটের জের ধরে মহাসড়কে যান চলাচলে বাধা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় সাত পরিবহন শ্রমিককে এক দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান এ তথ্য জানান।

কারাগারে পাঠানো শ্রমিকরা হলেন- রফিকুল ইসলাম, হাসানুর, রবিন, মো. সোহেল, ফজলে রাব্বী, আলামিন ও এনামুল হক।

আদালত সূত্র জানায়, আসামিদের এক দিনের রিমান্ড শেষে আজ শনিবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দারুস সালাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. যোবায়ের ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে তাদের হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাকিম খুরশীদ আলম আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সূত্র আরো জানায়, গত বৃহস্পতিবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আলমগীর কবির রাজ তাদের সাত দিনের রিমান্ড শুনানি শেষে এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, মানিকগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ, এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহতের মামলায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স পরিবহনের বাসচালক জামির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে চুয়াডাঙ্গা ও পরে যশোর বিভাগে ধর্মঘট শুরু করেন শ্রমিকরা। এ ধর্মঘট চলাকালে সাভারের ট্রাকচালক মীর হোসেন মিরুকে একটি হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। তারপর কোনো ধরনের নোটিশ ছাড়াই গত মঙ্গলবার থেকে সারা দেশে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেন পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা। ধর্মঘট চলাকালে গত মঙ্গল ও বুধবার বিভিন্ন সময়ে দফায় দফায় শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষ চলাকালে একটি টেলিভিশন চ্যানেলের গাড়ি ছাড়াও কিছু যানবাহন ভাঙচুর করা হয়। এ ছাড়াও শ্রমিকরা একটি পুলিশ বক্স ও রেকারে আগুন দেন।

 


মন্তব্য