kalerkantho


প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষর জাল: গ্রেপ্তার নারী রিমান্ডে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:২৪



প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষর জাল: গ্রেপ্তার নারী রিমান্ডে

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় দায়ের করা প্রতারণার মামলায় গ্রেপ্তার হাসিনা বেগম নামের এক নারীর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আজ সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম মুহাম্মদ মাজহারুল ইসলাম এ আদেশ দেন।

 

আদালত সূত্রে জানা যায়, এদিন আসামিপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলামসহ অন্যরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে গ্রেপ্তার হাসিনা বেগমকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালতের বিচারক হাসিনা বেগমের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরে বাংলা নগর থানার এসআই আব্দুল মালেক বলেন, তার সহযোগীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে এবং সংঘবদ্ধ জালিয়াত চক্রের মূল হোতাদের চিহ্নিত করতে এই আসামিকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন।  

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে হাকিম মাজহারুল ইসলাম আসামির দুদিন হেফাজতের আদেশ দেন বলে জানান ওই আদালতের পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কমৃকর্তা এসআই আলতাফ হোসেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আসামি হাসিনা বেগম নিজেকে গণভবনের বাবুর্চি বলে পরিচয় দেন। তিনি দুই দফায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভুয়া প্যাডে তাঁর প্রটোকল কর্মকর্তা মনজিলা ফারুকের নামে ও পরে খোদ প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষর জাল করে ছাত্রী ভর্তির জন্য শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে একটি চিঠি দেন।  

চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘...ফাহিম জামান দৃষ্টি আমার সুপরিচিত এবং নিকটাত্মীয়। তিনি যথেষ্ট মেধাবী এবং পরিশ্রমী।

এমতাবস্থায় তিনি যেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারেন এবং দেশ ও জাতির কল্যাণে মঙ্গল বয়ে আনতে পারেন তার জন্য আদেশ প্রদান করা হলো। ’ 

তবে শেষ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ কোটায় ওই ছাত্রীকে ভর্তির সুপারিশ করতে গিয়ে ধরা পড়েন হাছিনা বেগম।

 


মন্তব্য