kalerkantho


শিক্ষার্থীদের পিঠে হাঁটা সেই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে করা রিট খারিজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:০০



শিক্ষার্থীদের পিঠে হাঁটা সেই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে করা রিট খারিজ

শিক্ষার্থীদের পিঠের ওপর দিয়ে হাঁটার ঘটনায় চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নূর হোসেন পাটওয়ারীর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে রুল চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছে হাই কোর্ট।
বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জেবিএম হাসানের বেঞ্চ রবিবার আবেদনটি উপস্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন।


পরে রিট চেয়ে আবেদনকারী আইনজীবী মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান বলেন, “যেহেতু উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা হয়েছে। সে কারণে আদালতে রিট আবেদনটি উপস্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ হয়েছে। ”
২ ফেব্রুয়ারি দৈনিক যুগান্তরে প্রকাশিত ‘ছাত্রদের শরীরে গড়া সেতু দিয়ে আনন্দে হাটলেন জনপ্রতিনিধি’ শিরোনামের প্রতিবেদনটি যুক্ত করে রিট আবেদনটি করা হয়েছিল।
শিক্ষা সচিব, স্থানীয় সরকার সচিব, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান, মাউশির মহাপরিচালক, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক, হাইমচরের ইউএনও, অভিযুক্ত নূর হোসেন ও প্রধান শিক্ষক মোশাররফ হোসেনকে আবেদনে বিবাদী করা হয়।
গত ৩০ জানুয়ারি হাইমচরের নীলকমল ওছমানিয়া উচ্চবিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ছাত্ররা হাতে হাত রেখে তার ওপর একজনকে শুইয়ে প্রতীকী ‘পদ্মা সেতু’ বানায়। তাতে হাঁটার ছবি ও ভিডিও ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে নূর হোসেন সমালোচনায় পড়েন।
ঘটনার পরদিন ১ ফেব্রুয়ারি থানায় মামলা করেন আবদুল কাদের নামে এক অভিভাবক। মামলায় নূর হোসেন ও প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেনসহ পাঁচজনকে আসামি করা হয়।
নূর হোসেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ ছাড়াও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ অলংকৃত করছেন। কিন্তু দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাকে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের ঘোষণা দিয়েছেন।
দেশজুড়ে সমালোচিত চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নূর হোসেন পাটওয়ারীর শিক্ষার্থীদের পিঠের ওপর দিয়ে হাঁটার ঘটনা তদন্তে এবার সরকারের আরেকটি কমিটি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছে।
ঘটনা তদেন্ত স্থানীয় সরকার বিভাগ ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত পৃথক দুটি কাজ করেছে।


মন্তব্য