kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তাহমিদ ও হাসনাতকে ৫৪ ধারা থেকে অব্যাহতি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:০৮



তাহমিদ ও হাসনাতকে ৫৪ ধারা থেকে অব্যাহতি

শুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় ৫৪ ধারায় আটক দুই আসামি তাহমিদ হাসিব খান ও হাসনাত করিমকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মো. নূর নবী দুই পক্ষের শুনানি শেষে তাদের অব্যাহতির আদেশ দেন।

দুই জনকে ৫৪ ধারা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলেও হাসনাত করিমকে হলি আর্টিজান হামলায় গুলশান থানায় দায়ের করা সন্ত্রাসবিরোধী মামলায় আটক রাখা হয়েছে। শুনানির সময় তাহমিদ আদালতে উপস্থিত থাকলেও হাসনাত করিম কারাগারে ছিলেন।

শুনানির সময় তাহমিদের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল আদালতকে বলেন, গুলশান হামলায় ৫৪ ধারায় আটক আসামিদের বিরুদ্ধে তদন্তকারী কর্মকর্তা যেহেতু কোনও অভিযোগ পাননি, তাছাড়া তদন্তকারী কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর তাদের অব্যাহতির আবেদন করেছেন, তাই এই অব্যাহতির আবেদন মঞ্জুর করা হোক। রাষ্ট্রপক্ষের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা ও উপ-পরিদর্শক রনক কুমার ভক্ত আদালতকে শুনানির সময় বলেন, তদন্ত কর্মকর্তা ৫৪ ধারায় আটক দুই আসামিকে অব্যাহতির আবেদন করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জনকে হত্যা করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। পরে সেখানে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে কমান্ডো অভিযানে পাঁচ হামলাকারীসহ ছয়জন নিহত হয়। তার আগে সেখানে অভিযান চালাতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের বোমার আঘাতে নিহত হন পুলিশের দুই কর্মকর্তা।

হলি আর্টিজানে হামলার ঘটনার দিন সকালে দেশে ফেরা কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র তাহমিদ হাসিব খানও সেদিন ওই রেস্তোরাঁতেই ছিলেন। তবে ২ জুন সকালে সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানের তিনিসহ আরও কয়েকজনের সঙ্গে হলি আর্টিজান থেকে বেরিয়ে আসেন। হলি আর্টিজান থেকে উদ্ধার হওয়া জিম্মিদের মধ্যে যে কয়জনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের মধ্যে তাহমিদও ছিলেন।

পরে এই ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে তাহমিদ হাসিব খানকে ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত ৪ আগস্ট ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত দুই আটদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরপর ১৩ আগস্ট ঢাকার মহানগর হাকিম নুরুন্নাহার ইয়াসমিন ফের তার ছয়দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 


মন্তব্য