kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:০৭



শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় ৬ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

শিশু জিহাদের মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামি প্রকৌশলী আব্দুস সালাম ওরফে শফিকুল ইসলামসহ ৬ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন আদালত।
মঙ্গলবার ঢাকার ৫ম বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান এ চার্জ গঠন করেন।

এ সময় মামলা থেকে আসামিদের অব্যাহতি দেয়ার আবেদন নাকচ করে দেন তিনি।
আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের মধ্য দিয়ে শিশু জিহাদ মৃত্যুর ঘটনায় দায়ের করা মামলার বিচার শুরু হলো। আগামী ১৮ অক্টোবর সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে।
আসামিরা হলেন- প্রকৌশলী আব্দুস সালাম ওরফে শফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ রেলওয়ের ইঞ্জিনিয়ার জাহাঙ্গীর আলম, কমলাপুর রেলওয়ের সহকারি প্রকৌশলী নাসির উদ্দিন, ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার আবু আহমেদ শাকি, সহকারি প্রকৌশলী দিপক কুমার ভৌমিক এবং অপর সহকারী প্রকৌশলী সাইফুল ইসলাম।
গত ৩১ মার্চ ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক মিজানুর রহামন আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন।
চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়,  এসআর হাউজ নামক প্রতিষ্ঠান শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনির মৈত্রী সংঘ মাঠের পূর্ব দক্ষিণ কোণে একটি পানির পাম্পের ঠিকাদারী নিয়া অনুমান ৬শ ফুট কুপ খনন করেন। কিন্তু কুপের মুখ খোলা রেখে কোনো নিরাপত্তা ব্যবস্থা না করে অবহেলা ও তাচ্ছিল্য ভরে তা দীর্ঘদিন ফেলে রাখে। ফলে শিশু জিহাদ (৩) উক্ত স্থানে খেলা করতে গিয়ে পাইপের ভেতরে পরে গিয়ে মারা যায়।
২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরে বাসার কাছে রেলওয়ে মাঠের পাম্পের পাইপে পড়ে যায় জিহাদ। প্রায় ২৩ ঘণ্টা পর ২৭ ডিসেম্বর বিকেল তিনটার দিকে জিহাদকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় নিহত জিহাদের বাবা নাসির ফকির ফৌজদারি আইনের ৩০৪/ক ধারায় ‘দায়িত্বে অবেহেলায়’ জিহাদের মৃত্যুর অভিযোগে রাজধানীর শাহজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।


মন্তব্য