kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


খালেদাসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জ শুনানি ৩০ অক্টোবর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:০৯



খালেদাসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জ শুনানি ৩০ অক্টোবর

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসে পেট্রলবোমা নিক্ষেপসংক্রান্ত বিস্ফোরক আইনের মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জ শুনানির জন্য আগামী ৩০ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন আদালত। ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কামরুল হোসেন মোল্লা এ দিন ধার্য করেন।

খালেদা জিয়া অসুস্থ মর্মে তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া সময়ের আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করেন। ২০১৫ সালের ৬ মে'র ওই ঘটনায় বিস্ফোরক আইনের মামলায় চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের এসআই বশির আহমেদ।

চার্জশিটে খালেদা জিয়াকে প্রধান আসামি করা হয়। এ ছাড়া উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বরকত উল্লাহ বুলু, আমান উল্লাহ আমান, খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, শওকত মাহমুদ, বিশেষ সহকারী শামসুল ইসলাম শিমুল বিশ্বাস, প্রেসসচিব মারুফ কামাল খান, মীর আবু জাফর শামসুদ্দিন দিদার, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মীর শরাফত আলী সপু, বিএনপির ঢাকা মহানগরের সদস্যসচিব হাবিব উন-নবী খান সোহেল, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আজিজুল বারী হেলাল, সাবেক এমপি সালাহউদ্দিন আহমেদ, তার ছেলে তানভীর ওরফে রবিন, নবীউল্লাহ নবী, কাইয়ূম কমিশনার, লতিফ কমিশনার এবং পেশাজীবী দলের নেতা সেলিম ভূঁইয়া।

২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে পেট্রলবোমা ছোড়া হলে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। দগ্ধদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নূর আলম (৬০) নামক এক বৃদ্ধ যাত্রী। এ ঘটনায় ২৪ জানুয়ারি বিকেলে খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করেন থানার এসআই কে এম নুরুজ্জামান।

 


মন্তব্য