kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শায়েখ আব্দুর রহমানের দুই সহযোগীর ৩০ বছর কারাদণ্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:১২



শায়েখ আব্দুর রহমানের দুই সহযোগীর ৩০ বছর কারাদণ্ড

সিলেটে আলোচিত ‘সূর্যদীঘল’ বাড়ির অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় জঙ্গি শায়েখ আব্দুর রহমানের দুই সহযোগীর ৩০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসাথে তাদেরকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৭ বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়।


দণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গি সদস্য হচ্ছে- আবদুল আজিজ এবং মাজেদুল ইসলাম হৃদয়।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট মহানগর অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক ইব্রাহিম মিয়া এই রায় ঘোষণা করেন। আদালতের অতিরিক্ত পিপি মাসুক আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।  
অতিরিক্ত পিপি মাসুক আহমদ আরও জানান, সূর্যদীঘল বাড়ির অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় আদালত ৩৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করে আজ রায় ঘোষণা করে।  
এ মামলায় শায়েখ আব্দুর রহমানও আসামি ছিলেন। গতকাল বুধবার মামলার যুক্তিতর্ক শেষে আজ রায়ের তারিখ ধার্য্য করেছিলেন আদালত।
অতিরিক্ত পিপি মাসুক আহমদ জানান, ২০০৬ সালের ২ মার্চ আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী সিলেট মহানগরীর পূর্ব শাপলাবাগ সূর্যদীঘল বাড়িতে হরকাতুল জিহাদের জঙ্গি নেতা শায়েখ আব্দুর রহমানসহ অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান চালায়। ওই সময় বাড়ি থেকে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। যৌথবাহিনী ওই বাড়ি থেকে জেএমবির তৎকালীন শীর্ষ নেতা শায়েখ আবদুর রহমানের পরিবারের কয়েকজন সদস্যকে গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ বোমা তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার করে।
তিনি জানান, ওই ঘটনায় নগরীর কোতোয়ালী থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. ওয়ালীউল্লাহ বাদি হয়ে শায়েখ আবদুর রহমানসহ ৯ জনকে আসামি করে অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলা দায়ের করেন।  
তদন্ত শেষে ওই বছরের ১৮ মে সিলেট গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)-এর তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল আলম চৌধুরী শায়েখ আবদুর রহমানসহ ৭ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেন।  
পরবর্তীতে ২০০৮ সালের ২ জানুয়ারি চার্জগঠন শেষে এ মামলার বিচার কাজ শুরু হয়।  


মন্তব্য