kalerkantho


মোরশেদ খানের অর্থ পাচারে পুনঃতদন্তের রায় ৯ নভেম্বর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:৩৪



মোরশেদ খানের অর্থ পাচারে পুনঃতদন্তের রায় ৯ নভেম্বর

অর্থ পাচারের অভিযোগে বিএনপি নেতা ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম. মোরশেদ খান, তার স্ত্রী ও ছেলের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার পুনঃতদন্ত বিষয়ে আগামী ৯ নভেম্বর রায় ঘোষণা করা হবে। পুনরায় তদন্ত চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের শুনানি শেষে আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। অপরদিকে মোরশেদ খানের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী রোকন উদ্দিন মাহমুদ। পরে খুরশীদ আলম খান সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে এই মামলায় তাদের বিরুদ্ধে কেন পুনঃতদন্তের নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে গত ৫ জুন রুল জারি করে হাইকোর্ট। দুই সপ্তাহের মধ্যে মোরশেদ খানসহ তিনজনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছিল। সেই রুলের ওপর বৃহস্পতিবার শুনানি শেষ হয়েছে। এ দিনই আদালত রায়ের এই দিন ঠিক করেন। মামলার বিবরণীতে জানা যায়, মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগে ২০০৮ সালে মোরশেদ খান, তার স্ত্রী নাসরিন খান ও ছেলে ফয়সাল মোরশেদ খানের নামে একটি মামলা হয়। সেই মামলার প্রেক্ষিতে ২০১৫ সাল পর্যন্ত তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ ছিল। এই মামলায় গত বছর (২০১৫) তাদেরকে অব্যাহতি দিয়ে দুদক ফাইনাল রিপোর্ট প্রদান করলে তা বিচারিক আদালতে গৃহীত হয়।

পরে হংকংয়ের ব্যাংক থেকে দুদককে জানানো হয় যে, মোরশেদ খানসহ তিনজনের অ্যাকাউন্ট খুলে দেওয়া হয়েছে। এই খবর জানার পর ঢাকার বিশেষ আদালতে দুদকের পক্ষ থেকে ফাইনাল রিপোর্টের ওপর নারাজি আবেদন করা হয়। কিন্তু ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত সেই নারাজি আবেদন খারিজ করে দেন। নিম্ন আদালতের সেই খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে দুদক হাইকোর্টে একটি রিভিশন আবেদন করে। সেই আবেদনের ওপর শুনানি শেষে আদালত রায়ের এই দিন নির্ধারণ করেন।

 


মন্তব্য