kalerkantho

রবিবার। ২২ জানুয়ারি ২০১৭ । ৯ মাঘ ১৪২৩। ২৩ রবিউস সানি ১৪৩৮।


খালেদাসহ তিন আসামির আত্মপক্ষ সমর্থন ৭ এপ্রিল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ১৩:৩৫



খালেদাসহ তিন আসামির আত্মপক্ষ সমর্থন ৭ এপ্রিল

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ৭ এপ্রিল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ জামিনে থাকা তিন আসামির ৩৪২ ধারায় আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন ধার্য করেছেন আদালত। অন্য দুজন হচ্ছেন : জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খান। এজন্য তাদেরকে ওইদিন আদালতে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলা দুটির বিচারিক কার্যক্রম চলছে রাজধানীর বকশিবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের অস্থায়ী আদালতে।

আজ বৃহস্পতিবার ৩২তম ও শেষ সাক্ষী তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক হারুন-অর রশিদকে আসামিপক্ষের জেরার মধ্য দিয়ে শেষ হয় মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা। বেলা ১১টা থেকে প্রধান আসামি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে হারুন-অর রশিদের জেরা শুরু হয়। সাক্ষীকে আসামি মনিরুল ইসলাম খানের পক্ষে অসমাপ্ত জেরা করেন তার আইনজীবী টি এম আকবর। আসামিপক্ষ তাদের পক্ষে কোনো সাফাই সাক্ষী থাকবেন না বলে জানান। পরে ৭ এপ্রিল আসামির ৩৪২ ধারায় আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন ধার্য করে তাদেরকে হাজির থাকতে বলেন।

দুই মামলায়ই খালেদা জিয়ার পক্ষে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে অনুপস্থিতির জন্য আবেদন জানান তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও আব্দুর রেজ্জাক খান। এ ছাড়া তদন্ত কর্মকর্তার নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ও মামলা বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে খালেদার আবেদনের উল্লেখ করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত রাখার আবেদন জানান তারা। আদালত খালেদার অনুপস্থিতির আবেদন মঞ্জুর ও মামলা স্থগিতের আবেদন নামঞ্জুর করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের আদেশ দেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় এ পর্যন্ত সাক্ষ্য দিয়েছেন ৩২ জন সাক্ষী। অন্য ৩১ জনকে আসামিপক্ষের জেরা শেষ হয়েছে। অন্যদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার বাদী ও প্রথম সাক্ষী দুদকের উপপরিচালক হারুন-অর রশিদকে আসামিপক্ষের জেরা ও নতুন সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য রয়েছে বৃহস্পতিবার। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় মোট আসামি চারজন। অন্যদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার আসামি মোট ছয়জন।

 


মন্তব্য