kalerkantho

শনিবার । ২১ জানুয়ারি ২০১৭ । ৮ মাঘ ১৪২৩। ২২ রবিউস সানি ১৪৩৮।


বরিশালে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৬ ২৩:৫২



বরিশালে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন

বরিশালে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় দুই যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শেখ মো. আবু তাহের আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নগরীর পুরান কয়লাঘাট এলাকার মৃত রতন চৌকিদারের ছেলে শাহিন ওরফে হারুন চৌকিদার (২৫) ও হাসেম আলী হাওলাদারের ছেলে রাশেদ হাওলাদার ওরফে হোসেন আলী (২৩)। তারা দুজনই নগরীর বাজাররোড হক মিষ্টান্ন ভান্ডারের কর্মচারী ছিলেন।

আদালত সূত্র জানায়, যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশপাশি এক সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও পাঁচ বছর কারাদণ্ড দিয়েছে বিচারক। এ ছাড়াও আরেকটি ধারায় দুজনকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ৩ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মামলার নথির বরাত দিয়ে আদালতের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান জানান, নগরীর আলীর গলি এলাকার হারুন অর রশিদের মেয়ে মমতাজ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী সোনিয়াকে (১৫) বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্ত করত আসামিরা। এ ঘটনায় হারুন আসামিদের পরিবারের কাছে অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১১ সালের ১০ অগাস্ট কৌশলে সোনিয়াকে বাসার বাইরে ডেকে আনে এবং ধরে শাহিনের ভাড়া বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় সোনিয়া ডাক চিৎকার করলে খাটের সঙ্গে মাথায় আঘাত করে তাকে হত্যার পর তার লাশ বাসার পাশের ড্রেনে ফেলে দেয়।

আজিবর রহমান আরো জানান, পরদিন সকালে শাহিনের বাসার সামনের ড্রেন থেকে সোনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিনই কোতোয়ালি মডেল থানায়  দুজনকে আসামি করে মামলা করেন সোনিয়ার বাবা। একই বছরের ১৭ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ।


মন্তব্য