kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাত খুন মামলার বাদীর জেরা ১৪ মার্চ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৬ ১৪:১৭



সাত খুন মামলার বাদীর জেরা ১৪ মার্চ

নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল্যকর সাত খুন মামলার বাদীর জেরা ফের পিছিয়েছে। সেলিনা ইসলাম বিউটিকে আজ বৃহস্পতিবার জেরা করার দিন ধার্য থাকলেও আসামিপক্ষের সময় প্রার্থনার কারণে ১৪ মার্চ সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ফের দিন ধার্য করেন আদালত।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালত সকালে এ আদেশ দেন। পিপি ওয়াজেদ আলী খোকন জানান, বৃহস্পতিবার তারেক সাঈদ, এমএম রানা ও নূর হোসেনের পক্ষে একটি মামলার বাদী সেলিনা ইসলাম বিউটির জেরার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তারেক সাঈদের পক্ষের আইনজীবীরা উচ্চ আদালতে রিটের পরিপ্রেক্ষিতে সাক্ষ্য শুনানির জন্য সময় প্রার্থনা করেন। আদালত ১৪ মার্চ পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

জেরা শুরুর আগে বৃহস্পতিবার সকালে আসামি তারেক সাঈদের পক্ষের আইনজীবী সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আশরাফুজ্জামান ও গোলাম কিবরিয়া আদালতকে জানান, ৭ খুন মামলা বাতিল ও অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। রিটের নিষ্পত্তি এখনও হয় নাই। তা ছাড়া চার্জশিটের পূর্ণাঙ্গ সার্টিফাই কপি এখনও হস্তগত হয় নাই। তাই এখন বাদীকে জেরা করা যাচ্ছে না। সময় প্রয়োজন। পরে আদালত ১৪ মার্চ জেরার দিন ধার্য করেন।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম, তার বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন ও গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম এবং আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার গাড়িচালক ইব্রাহীম অপহৃত হন। পরে ৩০ এপ্রিল শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ছয়জনের ও ১ মে একজনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

তদন্ত শেষে প্রায় এক বছর পর ২০১৫ সালের ৮ এপ্রিল নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি সাত খুনের দুটি মামলায় নূর হোসেন ও র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ৩৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। এ মামলায় নূর হোসেন ও র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ মোট ২৩ জন কারাগারে রয়েছেন। আর চার্জশিটভুক্ত আসামিদের মধ্যে এখনও ১২ জন পলাতক।

 


মন্তব্য