kalerkantho


নয়মাইল ত্রিপুরাপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়

ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

জাকির হোসেন, দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি)   

১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

দীঘিনালার নয়মাইল ত্রিপুরাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। সামান্য বৃষ্টি হলেই ছাদ চুঁইয়ে পড়ে পানি। ভিজে যায় শিক্ষার্থীদের বই-খাতা। এ অবস্থাতেই চলছে পাঠদান।

ভবন নির্মাণের ২১ বছরেও এটি সংস্কার করা হয়নি বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, ১৯৮৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় নয়মাইল ত্রিপুরাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। পাকা ভবন নির্মিত হয়েছে ১৯৯৬-৯৭ অর্থ বছরে। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭৭। গত পিএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিল শতভাগ। ২৪ জন পিএসসি পাস করে। এর মধ্যে দুজন জিপিএ ৫ পেয়েছিল।

সরেজমিনে দেখা গেছে, শিক্ষার দিক থেকে বিদ্যালয়টির যথেষ্ট সফলতা থাকলেও জরাজীর্ণ ভবনের কারণে শিক্ষার্থীদের যেন দূর্ভোগের শেষ নেই।

ভবনের ভেতরের অংশে অনেক জায়গায় ফাটল। খসে পড়েছে পলেস্তারা। সামান্য বৃষ্টিতে শ্রেণিকক্ষের উপরে ছাদ চুঁইয়ে পানি পড়ে। শিক্ষার্থীদের জন্য এ যেন এক আতঙ্কের ভবন।

৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী উৎস ত্রিপুরা, নতুনবালা ত্রিপুরা, ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী আইচুকটি ত্রিপুরা, সোহেল ত্রিপুরা, ৩য় শ্রেণির শিক্ষার্থী মাধব ত্রিপুরা, ধরিত্রী ত্রিপুরা জানায়, ভবনের অবস্থা দেখে শ্রেণিকক্ষে বসেও থাকতে হয় আতঙ্কের মধ্যে। এছাড়া বৃষ্টি হলে ছাদ চুঁইয়ে যেভাবে পানি পড়ে তাতে মনেই হয় না একটি একটি পাকা ভবন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সূর্যশ্বর ত্রিপুরা জানান, প্রতিদিন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি শতভাগ। যা অন্যান্য বিদ্যালয়ের চেয়ে অনেক বেশি। কিন্তু ভবন সমস্যার সমাধান না হওয়ায় সবাই রীতিমতো চিন্তিত থাকেন সবসময়।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি কৃষ্ণ কিশোর ত্রিপুরা জানান, ভবন নির্মাণের পর এত বছরেও এর সংস্কার করা হয়নি। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানানো হয়েছে।

 



মন্তব্য