kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

সরকারি ছুটি তোয়াক্কা করছে না রোহিঙ্গা শিবিরের কয়েকটি এনজিও

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

১৭ মার্চ, ২০১৯ ১৬:২২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরকারি ছুটি তোয়াক্কা করছে না রোহিঙ্গা শিবিরের কয়েকটি এনজিও

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরে কর্মরত বেশ কয়েকটি এনজিওর বিরুদ্ধে (বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা) বাংলাদেশের সরকারি ছুটিরও তোয়াক্কা না করার অভিযোগ উঠেছে। এসব এনজিও আজ রবিবার যথারীতি রোহিঙ্গা শিবিরে কাজ করেছে।

বাংলাদেশের স্থপতি এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন-জাতীয় শিশু দিবস হিসাবে দিবসটি সরকারি ছুটির দিন। সরকারি ছুটির দিন সত্বেও রোহিঙ্গা শিবিরে এনজিওগুলোর স্বাভাবিক কাজকর্ম নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে।

খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেছে, আজ সরকারি ছুটির দিনেও অন্তত ১৫টি এনজিও যথারীতি রোহিঙ্গা শিবিরে কাজ করেছে। এসব এনজিওর মধ্যে খোদ বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি (বিডিআরসি) পর্যন্ত রয়েছে। সরকারি ছুটি অমান্য করে রোহিঙ্গা শিবিরে কাজ করা অন্যান্য যেসব এনজিওর নাম জানা গেছে, সেগুলো হচ্ছে যথাক্রমে একটেড, টিডিএইচ, অক্সফাম, মুক্তি, পিএইচডি ও হোপ ফাউন্ডেশন।

এসব এনজিওর মধ্যে একটেড নামে কোনো এনজিও এ পর্যন্ত রোহিঙ্গা শিবিরে কাজ করার অনুমতি প্রাপ্তও হয়নি। তারপরেও এনজিওটি নানাভাবে শিবিরে গোপনে কাজ করছে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, ফ্রান্স ভিত্তিক একটেড নামের এই এনজিওটি কাজ করছে সুইজাল্যান্ড ভিত্তিক হেলভেটাস নামের অন্য একটি এনজিওর সাথে। তবে আজকের ছুটির দিনেও শিবিরে কাজ করার কথা অকপটে স্বীকার করেছেন একটেড এনজিওর তিনজন কর্মী।

নাম জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়ে এই তিন কর্মী বলেন, ‘আমরা এখনো সরকারি অনুমতি পাইনি। তবে আমরা কাজ করছি মাদার এনজিও হেলভেটাসর সাথে। সুইজারল্যান্ডের এনজিও হেলভেটাসকে আমরা আজ রবিবার বাংলাদেশের জাতির জনকের জন্মদিনের ছুটির কথা বার বার বলেছি কিন্তু তারা ছুটি মানতে নারাজ।

বিডিআরসির সমন্বয়কারী এ প্রসঙ্গে বলেছেন, রোহিঙ্গা শিবিরে আজ জাতিসংঘের একজন পদস্থ কর্মকর্তা পরিদর্শন করেছেন। তাই ওই কর্মকর্তা যে শিবির পরিদর্শন করেছেন সেখানেই তাদের কর্মকাণ্ড ছিল।

এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের এনজিও শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার বলেছেন, ‘এনজিওগুলো বাংলাদেশে যেহেতু কাজ করছে সেহেতু এদেশের প্রচলিত আইন তারা মানতে বাধ্য। তবুও অভিযোগটি যাচাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য