kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

সকালে ভাড়া বাসায় উঠে বিকেলে যুবক খুন

আরেক ঘটনায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম    

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ১২:২০



সকালে ভাড়া বাসায় উঠে বিকেলে যুবক খুন

সকালে ‘স্ত্রী’সহ ভাড়া বাসায় উঠে বিকেলেই খুন হয়েছেন এক যুবক (২৮)। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম নগরের পাহাড়তলী থানা এলাকার আব্দুল আলী নগর এলাকায় একটি সেমিপাকা বাসা থেকে গলা কেটে হত্যা করা যুবকটির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর স্ত্রী পরিচয় দেওয়া নারী পলাতক রয়েছেন।

এদিকে নগরের আগ্রাবাদের একটি হাসপাতাল থেকে জান্নাতুল ফেরদৌস নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে দাবি করে জান্নাতুলকে তাঁর স্বামীই হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তবে জান্নাতুলের স্বজনদের দাবি, স্বামীই তাঁকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন। পুলিশ স্বামী গোলাম রসুলকে আটক করেছে।

ভাড়া বাসায় উঠেই খুন : পাহাড়তলী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অর্ণব বড়ুয়া জানান, কয়েক দিন আগে আব্দুল আলী নগর এলাকায় নেছারিয়া মাদরাসার সামনে বাসাটি ভাড়া নেন ওই যুবক। আজ (গতকাল শনিবার) সকাল ১১টার দিকে স্ত্রী পরিচয়ে এক নারীসহ ওই বাসায় ওঠেন। বিকেল ৩টার দিকে স্থানীয়দের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। কম্বলে শোয়ানো লাশটি বিছানার চাদর দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছিল। পুলিশ সেখান থেকে একটি রক্তমাখা ছুরিও উদ্ধার করেছে। তবে ওই ঘরে আর কোনো আসবাবপত্র ছিল না।

অর্ণব বড়ুয়া বলেন, ‘যুবকের পরিচয় কিছুই বাড়ির মালিক জানেন না। তাঁর জাতীয় পরিচয়পত্রও নেওয়া হয়নি। স্ত্রী পরিচয় দেওয়া নারীকেও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।’

স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ : চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদের মা ও শিশু হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ নিয়ে আসার পর আটক হওয়া গোলাম রসুলের বাড়ি চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলায়। তিনি একটি গ্যারেজে কাজ করেন। নগরের নিমতলা এলাকায় স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করতেন।

বন্দর থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন বলেন, ‘বিষয়টি হত্যা নাকি আত্মহত্যা—সেটা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে এলে বলা যাবে।’

জানা গেছে, শনিবার সকাল ১০টার দিকে গোলাম রসুল তাঁর স্ত্রীকে আগ্রাবাদের মা ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সকাল ১১টার দিকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) মর্গে পাঠায়। জান্নাতুলের গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গোলাম রসুল জানিয়েছেন, জান্নাতুল ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করছেন খবর পেয়ে তিনি বাসায় যান। স্ত্রীকে তিনি ঝুলন্ত অবস্থায় পান।

তবে জান্নাতুলের মা ও স্বজনরা অভিযোগ করেছেন, ‘দুই দিন আগেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল। এর জেরে গোলাম রসুল জান্নাতুলকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে।’



মন্তব্য