kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

ছাত্রলীগকর্মী ফয়সল হত্যাকাণ্ড

ফটিকছড়িতে হামলার শিকার পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

২০ অক্টোবর, ২০১৮ ০১:৩০



ফটিকছড়িতে হামলার শিকার পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে ছাত্রলীগকর্মী ফয়সল খুনের সঙ্গে জড়িত থাকার মিথ্যা অভিযোগ এনে ঘরবাড়ি ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ করেছে একটি পরিবার। গতকাল শুক্রবার ফটিকছড়িতে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মেয়ে তানিয়া আকতার। তিনি বলেন, ১৪ অক্টোবর রাতে হচ্ছারঘাট এলাকায় ফয়সল নামে এক ছাত্রকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িয়ে ‘পূর্ব শত্রুতা’ থেকে সাবেক ইউপি মেম্বার আব্দুল লতিফ সাঙ্গোপাঙ্গ নিয়ে তাঁদের বাড়িতে হামলা চালিয়েছেন। 

তানিয়া বলেন, ‘তারা আমার পিতা নুরুল আলম সওদাগরের পাকা ঘরে ঢুকে ২০ লাখ টাকার সোনা, পাঁচটি স্মার্ট ফোন, ওমরাহ পালনের জন্য ঘরে রাখা দুই লাখ টাকা, আট লাখ টাকা মূল্যমানের ১২টি গরু লুট করে নিয়ে য়ায়। দুটি ফ্রিজ, পাঁচটি টিভি, কুলার ফ্যান, ওয়ার্ডরোবসহ দামি সব আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে। পরে আমাদের পাকা ঘর, দুই লাখ টাকা মূল্যের মোটরসাইকেল, দুটি বাইসাইকেল, আমাদের মালিকানাধীন ছয়টি দোকানসহ সব কিছু অগ্নিসংযোগে জ্বালিয়ে দেয়। এ লুটপাট, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগে আমাদের প্রায় ৬০-৭০ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন হয়েছে। তবে এ ঘটনার সঙ্গে নিহত ফয়সল পরিবারের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে আমি মনে করি।’

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ‘আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শিশু-বৃদ্ধসহ পরিবারের ১৩ সদস্য আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি। আমাদের সন্তানেরা (জেএসসি-পিএসসি পরীক্ষার্থী) পড়ালেখাসহ আমাদের পরিবারের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। বাড়ি ফিরলে আমাদের সপরিবারে হত্যার ভয়ে আমরা উত্কণ্ঠিত।’ তানিয়া আরো বলেন, ‘হুমকি পেয়ে ১৫ অক্টোবর সকালেই আমরা ফটিকছড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ করি। কিন্তু পুলিশি অবহেলার কারণে ১৫ অক্টোবর বিকেলে আমাদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হয়।’ তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের ঘরবাড়িতে ফেরার নিশ্চয়তা-নিরাপত্তা চাই। আমরাও নিহত ফয়সল হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি। নিরপেক্ষ তদন্তে প্রশাসন যদি এ ঘটনায় আমাদের পরিবারের কোনো ব্যক্তির সম্পৃক্ততা পায়; তবে আমরা তারও বিচার দাবি করছি।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ক্ষতিগ্রস্ত নুরুল আলম সওদাগরের স্ত্রী বুলবুল খাতুন (৬২), পুত্রবধূ লাভলী আকতার (৩৫), লাভলী বেগম (৩৩), রুমী আকতার (২৫)। 



মন্তব্য