kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

মানবতাবিরোধী অপরাধ : তদন্তদলের আবারো নবীগঞ্জ পরিদর্শন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০১৮ ০৩:২৪



মানবতাবিরোধী অপরাধ : তদন্তদলের আবারো নবীগঞ্জ পরিদর্শন

মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় তদন্তদল আবারো হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেছে।

গতকাল শুক্রবার তারা ওই ইউনিয়নের আটটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাক্ষীদের সঙ্গে কথা বলে। মূলত স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বহিষ্কৃত আওয়ামী লীগ নেতা আবুল খায়ের গোলাপের বিরুদ্ধে করা মামলার বিচারকাজ শুরু করার আগে মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার সহকারী কমিশনার নুর হোসেন জানান, ওই মামলায় এটিই শেষ তদন্ত। এ মাসের শেষদিকে মামলার চার্জ গঠন করা হবে। এরপর বিচারকাজ শুরু হবে। প্রসিকিউটররা মামলা পরিচালনার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা নিতে এবং তদন্ত যথাযথ হয়েছে কি না জানতে আটটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সাক্ষীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রসিকিউটর জেয়াদ আল মালুম, প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানাসহ ৯ সদস্যের একটি দল।

নুর হোসেন আরো জানান, তদন্তকালে তারা ঘটনার সত্যতা পান। এখন বিচার শুরু হলে সে আলোকে তারা আইনি লড়াইয়ে অংশ নেবেন। এ মামলায় আবুল খায়ের গোলাপ ও জামাল উদ্দিন গ্রেপ্তার আছেন। মুফতি গিয়াস উদ্দিন পলাতক আছেন। মে মাসেই মামলার বিচারকাজ শুরু হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ১৭ জুলাই ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের গোলাপের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ এনে উপজেলার নিশাকুড়ি গ্রামের মানিক মিয়া বাদী হয়ে মামলা করেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য জেলা পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেন বিচারক। হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশের তত্কালীন ওসি মো. মোক্তাদির হোসেন দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি গোলাপের বিরুদ্ধে আদালতে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।



মন্তব্য