kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা

রাউজানে আটক দুজনকে থানায় হস্তান্তর র‌্যাবের

রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০৩:১৩



রাউজানে আটক দুজনকে থানায় হস্তান্তর র‌্যাবের

প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত অভিযোগে রবিবার রাতে আটক দুজনের বিরুদ্ধে রাউজান থানায় মামলা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন ডাবুয়া ইউনিয়নের জগন্নাথহাট এলাকার নুরুচ্ছাফার ছেলে নুরুল আফসার সবুজ (২০) ও একই এলাকার মো. আলমের ছেলে ইমরান হোসেন মনির (১৭)। গতকাল সোমবার বিকেলে র‌্যাবের একটি দল তাদের রাউজান থানায় হস্তান্তর করে।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে এসএসসি পরীক্ষার্থী ইমরান। একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে সে প্রশ্নপত্র কেনে। এরপর ২০০ টাকা করে দুজনের কাছে বিক্রি করে। এই বিক্রিতে ব্যবহৃত বিকাশ নম্বরটির মাধ্যমে তাকে ও সবুজকে আটক করে র‌্যাব।

সবুজ থানায় সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, 'আমার একটি টেলিকম সেন্টার আছে। সেখানে বিকাশের এজেন্টও আছে। ইমরান আমার প্রতিষ্ঠানের বিকাশ নম্বর দিয়ে প্রশ্নপত্র ফাঁসের অর্থ আনায় আমি ফেঁসে গেছি। ইমরান বিকাশে কিসের টাকা এনেছে তাও আমি জানতাম না।' রাউজান থানার ওসি কেফায়েত উল্লাহ বলেন, 'র‌্যাবের একটি দল প্রশ্ন ফাঁসে জড়িত দুজনকে থানায় হস্তান্তর করেছে। তাদের বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আগামীকাল (আজ মঙ্গলবার) তাদের কোর্টে প্রেরণ করা হবে।'

প্রশ্নপত্র ফাঁসচক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রাউজান উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, 'এ ধরনের সংবাদ আমি পত্রিকায় দেখেছি।'



মন্তব্য