kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

চকরিয়ায় উদ্ধার শিকলবাহা বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রহরী

অপহরণকারীচক্রের হোতা গ্রেপ্তার

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০২:১৭



চকরিয়ায় উদ্ধার শিকলবাহা বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রহরী

চট্টগ্রামের শিকলবাহা বিদ্যুৎকেন্দ্রের নৈশপ্রহরী মো. আনোয়ার হোসেনকে (৫৬) অপহরণের তিন দিন পর কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পৌরসভার ফুলতলা এলাকার একটি ভাড়া বাসা থেকে পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে। এ সময় গ্রেপ্তার করা হয় অপহরণকারীচক্রের হোতাকে।

গ্রেপ্তারকৃত মাহবুবুর রহমান ওরফে মুহিবুল্লাহ (২৪) কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মগডেইল গ্রামের আব্দুল গাফফারের ছেলে।

নৈশপ্রহরী আনোয়ার হোসেন চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার পশ্চিম ঢেমশার উত্তর রামপুর গ্রামের মৃত নজির আহমদের ছেলে। গত সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাঁকে চট্টগ্রাম নগরের মইজ্যারটেক এলাকা থেকে অপহরণ করে একদল দুর্বৃত্ত। তারা পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ চায় আনোয়ারের পরিবারের কাছে।

আনোয়ারের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন বলেন, তাঁর বাবাকে অটোরিকশায় তুলে প্রথমে আগ্রাবাদ নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মহেশখালীর মাতারবাড়ী কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকায়। সেখান থেকে আবার চকরিয়া পৌরসভার ফুলতলায় এরশাদুল হকের ভাড়া বাসায় নিয়ে তাঁর বাবাকে আটকে রাখা হয়। এরপর গতকাল অপহরণকারীচক্রটি মোবাইল ফোনে তাঁর কাছে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে বলে সাজ্জাদ জানান।

তিনি বলেন, টাকা নিয়ে তাঁকে চকরিয়ার চিরিঙ্গা মাতামুহুরী ব্রিজ এলাকায় আসতে বলেন অপহরণকারীচক্রের সদস্য সাকেরা বেগম। তিনি ওই এলাকার দিকে রওনা হন এবং চকরিয়া থানাকে বিষয়টি জানান। অবশেষে ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তাঁর বাবাকে উদ্ধার করা হয়।

তবে এ সময় পালিয়ে যায় অপহরণকারীচক্রের আরেক সদস্য হেলাল উদ্দিন ও তার মা সাকেরা বেগম (ফুলতলার ভাড়াটিয়া)। কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের ডুয়াখালী গ্রামের বাসিন্দা তারা। সাকেরার স্বামী আশরাফুর রহমান সৌদি আরব প্রবাসী।

সাজ্জাদ বলেন, গত তিন দিন ধরে অপহরণকারীরা তাঁর বাবাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করেছে। তারা তাঁর কয়েকটি দাঁত ও হাত-পায়ের নখ উপড়ে ফেলে।

চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এনামুল হক অপহূত নৈশপ্রহরীকে উদ্ধার এবং একজনকে গ্রেপ্তার করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, 'এ ব্যাপারে মামলা হয়েছে। অপহরণচক্রের অন্য সদস্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



মন্তব্য