kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

চট্টগ্রামে ছাত্রলীগকে ঢেলে সাজাতে আওয়ামী লীগ নেতাদের বৈঠক

নগর ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেওয়া হচ্ছে!

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৪:৫৬



চট্টগ্রামে ছাত্রলীগকে ঢেলে সাজাতে আওয়ামী লীগ নেতাদের বৈঠক

ছাত্রলীগ বিষয়ে চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন দলটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম। তবে ওই বৈঠকে ছাত্রলীগের কাউকে ডাকা হয়নি।

আওয়ামী লীগ নেতারা ছাত্রলীগের মহানগর, উত্তর ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সম্মেলন করে দ্রুত নতুন কমিটি করতে একমত হয়েছেন। এ ছাড়া বৈঠকে ছাত্রলীগ যাতে মূল দলের নিয়ন্ত্রণে থাকে, সেই বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

জানা যায়, গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে মেয়রের কার্যালয়ে এই বৈঠক হয়েছে। এতে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ, উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন ও শাহজাদা মহিউদ্দিন ওই বৈঠকে ছিলেন।

এনামুল হক শামীম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ছাত্রলীগ নিয়ে বসেছিলাম। কেন্দ্র থেকে এরই মধ্যে ২৪ ফেব্রুয়ারি মহানগর এবং ২৭ ফেব্রুয়ারি উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। সেই সম্মেলন যাতে সুন্দরভাবে হয় এবং স্বচ্ছ-পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তির সংগঠক দিয়ে যাতে নতুন কমিটি হয়, সেই বিষয়ে আমরা সবাই একমত হয়েছি।’

জানা যায়, বৈঠকে দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি দ্রুত পূর্ণাঙ্গ করার বিষয়ে উদ্যোগ নিতে মোছলেম উদ্দিনকে বলা হয়েছে। উত্তরের সম্মেলন যাতে নির্বিঘ্নে সুশৃঙ্খলভাবে হয়, সেটি দেখভাল করার জন্য এম এ সালামকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বৈঠকে সাম্প্রতিক সময়ে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী হত্যার প্রসঙ্গও আসে। এ ছাড়া দুয়েকজন ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের অসম্মান করার প্রসঙ্গও আসে।

এ ব্যাপারে আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, ‘ছাত্রলীগ যাতে মূল দল হিসেবে আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণে থেকে সুন্দরভাবে কার্যক্রম পরিচালিত হয় সে বিষয়ে আমরা একমত হয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আমাদের সঙ্গে ছাত্রলীগ নিয়ে বৈঠকটি করেছেন।’

এনামুল হক শামীম বলেন, ‘অভিযোগ-পাল্টাঅভিযোগ নয়, যেহেতু নগর ও উত্তর জেলা কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগই সম্মেলনের নতুন তারিখ দিয়েছে। সম্মেলনের মাধ্যমে যাতে সুন্দর কমিটি আসে সেটা আমরা দেখব।’



মন্তব্য