kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

অভাগা ডাকাতদল

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০১:৫২



অভাগা ডাকাতদল

গত শনিবার গভীর রাতে একটি ডাকাতদল হানা দিয়েছিল সীতাকুণ্ড সৈয়দপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ কেদারখালী গ্রামে। সেখানে দর্জিবাড়ীর আবুল কাসেমের ঘরে ঢুকে তারা মালামাল লুটের চেষ্টা চালায়। জিম্মি করা হয় কাসেম ও তাঁর স্ত্রীকে। কিন্তু ঘরে মূল্যবান মালামাল না পেয়ে ডাকাতরা এক হাজার ১০০ টাকা, দুটি মোবাইল ফোনসেট আর কিছু কাপড়-চোপড় নিয়েই সটকে পড়ে। যাওয়ার আগে আক্ষেপের সুরে ডাকাত সর্দার বলে যায়, 'গত বছরও এ বাড়িতে তেমন কিছু পাইনি, এবারও নেই। আপনারা ঘরে কিছু রাখেন না কেন? আমরা কি খালি হাতে ফিরব?'

গৃহকর্তা আবুল কাসেম জানান, ডাকাতরা রাত আনুমানিক দেড়টায় ছাদ দিয়ে কৌশলে ভেতরে ঢোকে।
স্বামী-স্ত্রীকে হাত-মুখ ও চোখ বেঁধে ঘরের ভেতরে ফেলে রাখে। এরপর সবকিছু তছনছ করে তেমন কিছু না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে। গত বছর ডাকাতদল একইভাবে তাদের জিম্মি করে মালামাল পায়নি। তখন রান্না ঘরে বসে ডাকাতরা ভাত খেয়ে চলে যায়। এবার ডাকাতদের কথায় বোঝা গেছে সে সময় একই দল এসেছিল ডাকাতি করতে।

সৈয়দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম নিজামী বলেন, ডাকাতরা বাড়িতে ঢোকার পরপরই মেম্বার সাইফুল ইসলামের মাধ্যমে ঘটনা জানতে পারি। সংবাদ দিলে দ্রুত পুলিশ পৌঁছে। এ অবস্থায় ডাকাতরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী ঘরে ঢুকে বৃদ্ধ আবুল কাসেম ও তাঁর স্ত্রীকে উদ্ধার করেন।



মন্তব্য