kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল চাপা দিয়ে বাস খাদে, নিহত ৭

ফেনীর এ দুর্ঘটনায় আহত ২৫

ফেনী প্রতিনিধি   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৩:০০



অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল চাপা দিয়ে বাস খাদে, নিহত ৭

ফেনীতে সিনএনজি অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলকে চাপা দিয়ে একটি বাস খাদে পড়ে উল্টে গিয়ে সাতজন নিহত এবং কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়েছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে দাগনভূঞা উপজেলার আমিরগাঁও নামক স্থানে ফেনী-মাইজদী সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিক জানা যায়নি।

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও ফেনী সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম থেকে লক্ষ্মীপুর যাচ্ছিল শাহী পরিবহনের বাসটি। গতকাল সন্ধ্যায় আমিরগাঁও এলাকা অতিক্রম করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেল ও একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দিয়ে বাসটি খাদে পড়ে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন মাঝবয়সী পুরুষ এবং হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরো তিনজন মারা যায়। আহত হয় কমপক্ষে ২৫ জন। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতদের মধ্যে ফেনী সদর হাসপাতালে আছেন লক্ষ্মীপুরের নাসিরের ছেলে বেলাল হোসেন, ভোলার চরফ্যাশনের আব্দুল খালেকের ছেলে আব্দুল হান্নান, আব্দুর রশিদের ছেলে আলমগীর, মো. সুমন ও ওমর, চরফ্যাশনের শাহজাহানের ছেলে মো. শহীদ, শাওনের ছেলে মিরাজ ও আলীর মেয়ে রোকসানা, চাঁদপুরের মতলব উপজেলার নাইমুর হোসেনের ছেলে আবু নাসের মিজি, ফেনীর সোনাগাজীর আব্দুলের ছেলে জহিরুল ইসলাম, চট্টগ্রামের আনোয়ারার ইউসুফের ছেলে মো. হান্নান, ফাতেমা জান্নাত ও হান্নান, ভোলার চরকালামিয়া এলাকার আব্দুর রবের ছেলে মহিন উদ্দিন এবং ফেনীর ফুলগাজীর মামুন।  

আহত আরো কয়েকজনকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং পাঁচ-ছয়জনকে দাগনভূঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

দাগনভূঞা থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা স্থানীয়দের সহায়তায় নিহতদের লাশ এবং আহতদের হাসপাতালে নিয়েছে। পুলিশ বাস, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে।

ফেনী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মোজাম্মেল হোসেন বলেন, নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। কেননা কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। নিহতদের স্বজনরা না আসা পর্যন্ত তাদের নাম-পরিচয় জানা যাচ্ছে না।

আহতদের কয়েকজন জানায়, সিএনজি অটোরিকশার যাত্রীরা দাগনভূঞার বাসিন্দা। আর বাসযাত্রীদের বেশির ভাগ ভোলার চরফ্যাশনের।

রাত ১০টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় ফেনী সিভিল সার্জন অফিসের সহকারী পরিচালক ডা. হাবিবুল করিম ফেনী সদর হাসপাতালে এসে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। তিনি বলেন, আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।



মন্তব্য