kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন দিনব্যাপী নাট্যোৎসব

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৩:০২



চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন দিনব্যাপী নাট্যোৎসব

'সৃজনে ছন্দে, সৃষ্টির আনন্দে'-এ প্রতিপাদ্য ধারণ করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন দিনব্যাপী নাট্যোৎসব শুরু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের আয়োজনে নবনির্মিত মুক্তমঞ্চে শুরু হওয়া এ উত্সব উদ্বোধন করেন উপাচার্য ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী। একই সঙ্গে তিনি নাট্যমঞ্চ, ডিজাইন ল্যাব ও গ্যালারি ৪ উদ্বোধন করেন।

এই আনুষ্ঠানিকতা শেষে আলোচনাসভায় উপাচার্য বলেন, 'ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্রজীবনের প্রকৃত রূপ নাটকের মাধ্যমে তুলে ধরা সম্ভব। তাই নাটককে বলা হয় সমাজের দর্পণ। এ নাট্যোৎসবের বর্ণিল আয়োজন ও প্রাণচঞ্চল আনন্দময়তা সকল প্রকার গ্লানি, তুচ্ছতা, কূপমণ্ডূকতা, মৌলবাদ-জঙ্গিবাদসহ অশুভ শক্তিকে নিধন করে উদার-মহৎ প্রাণের ঐশ্বর্য সৃষ্টিতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।'

সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক ও প্রাবন্ধিক আবুল মোমেন বলেন, 'নাটকের মাধ্যমেই আমরা সহজেই সমাজের মানুষদের কাছে বিভিন্ন বার্তা পৌঁছে দিতে পারি। অনেক সময় আমরা দেখি নাট্যকারদের বিভিন্ন রকম ভর্ৎসনার শিকার হতে হয়। আমাদের সবাইকে এই মন-মানসিকতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। নাটক যাঁরা করেন তাঁদের অনুপ্রাণিত করতে হবে।'

নাট্যকলা বিভাগের সভাপতি অসীম দাশ বলেন, 'আমাদের বিভাগে অনেক সমস্যা রয়েছে। তবু আমরা সাধ্যমতো এগিয়ে যাচ্ছি। দর্শকদের জন্য ভালো নাটক উপহার দিতে সক্ষম হচ্ছি। আশা রাখি সামনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় আমাদের শিক্ষার্থীরা আরো ভালো নাটক দেশ-বিদেশে মঞ্চায়ন করতে পারবে।'

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীন আখতার, কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর মো. সেকান্দর চৌধুরী, নাট্যকলা বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ।

আলোচনাসভা শেষে নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় নাটক 'প্রতিদিন একদিন' ও 'মধ্যম ব্যায়োগ' মঞ্চায়িত হয়। এ ছাড়া নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থী মিরাক্কেল তারকা কায়কোবাদ কৌতুক পরিবেশন করেন। এর আগে দুপুরে উপাচার্যের নেতৃত্বে একটি নাট্যশোভাযাত্রা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।


মন্তব্য