kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

মেয়রের আশ্বাসে চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০১:৪২



মেয়রের আশ্বাসে চট্টগ্রামে পরিবহন ধর্মঘট স্থগিত

ট্রাফিক পুলিশের হয়রানি বন্ধ করাসহ ১১ দফা দাবিতে চট্টগ্রাম মেট্রো গণপরিবহন মালিক সংগ্রাম পরিষদের অনির্দিষ্টকালের গণপরিবহন ধর্মঘট স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। নগর ভবনে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের সঙ্গে বৈঠক শেষে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ধর্মঘট পালনকারীরা এই ঘোষণা দেয়।

এর আগে চট্টগ্রাম মেট্রো গণপরিবহন মালিক সংগ্রাম পরিষদ, বিআরটিএ কর্মকর্তাদের সঙ্গে মেয়র বৈঠক করেন। এতে ধর্মঘট স্থগিতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানায়।

উল্লেখ্য, ১১ দফা দাবিতে সংগঠনটি গত রবিবার সকাল ৬টা থেকে চট্টগ্রাম মহানগরে অনির্দিষ্টকালের গণপরিবহন ধর্মঘট পালন শুরু করে। গতকাল ধর্মঘটের তৃতীয় দিনে এসে সন্ধ্যায় তা স্থগিত করা হয়েছে। তবে এ ধর্মঘটের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে নগরে মালিক সমিতির অন্য একটি অংশ তাদের গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রাখে। এই পক্ষের নেতৃত্বে ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম চৌধুরী মঞ্জু।

সভায় মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, 'মালিক শ্রমিকদের সহযোগিতায় গণপরিবহনে সুশৃঙ্খল পরিবেশ সুরক্ষা করতে হবে। সব দাবি আলোচনার ভিত্তিতে সমাধান করা হবে। জনদুর্ভোগ সৃষ্টি না করে জনগণের চাহিদা পূরণে পরিবহন মালিকদের সচেষ্ট হতে হবে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ব্যবস্থাপনায় ড্রাইভার প্রশিক্ষণ কোর্স চালু করা হবে এবং যাত্রী সাধারণের সুবিধার্থে ৬৬টি স্পটে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন আধুনিক সুবিধাসংবলিত যাত্রী ছাউনি নির্মাণ করবে। অবৈধ গাড়ি চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কোনো সংগঠন বৈধতা পাবে না। '

ধর্মঘট স্থগিতের বিষয়টি জানিয়ে চট্টগ্রাম মেট্রো গণপরিবহন মালিক সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক বেলায়েত হোসেন বেলাল গতকাল রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, 'নগর ভবনে মেয়র মহোদয়ের সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে। এতে আমরা আমাদের যৌক্তিক দাবিগুলো তুলে ধরি। মাননীয় মেয়র আমাদের দাবিগুলো পুলিশসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে বাস্তবায়ন করার আশ্বাস দিয়েছেন। তাঁর আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে এবং মানুষ যাতে দুর্ভোগের শিকার না হয় তাই আমরা আজকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় (গতকাল) গণপরিবহন ধর্মঘট স্থগিত করেছি। '

সভায় বিআরটিএ চট্টগ্রামের উপপরিচালক মো. শহীদুল্লাহ, চট্টগ্রাম মেট্রো গণপরিবহন মালিক সংগ্রাম পরিষদ এবং শ্রমিক নেতাদের মধ্যে আমজাদ হোসেন, এস এম তৈয়ব, মো. মুছা, মো. অলি আহমদ, জিয়া উদ্দিন শরিফ মিজান, এম এ হাকিম, অরুন দাশগুপ্ত ভানু প্রমুখ।


মন্তব্য