kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

নির্মাণকাজের উদ্বোধন আজ

সীতাকুণ্ডে মুক্তিযুদ্ধে নিহত ভারতীয় সেনাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

৪ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০২:৪১



সীতাকুণ্ডে মুক্তিযুদ্ধে নিহত ভারতীয় সেনাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে মুক্তিযুদ্ধে নিহত শতাধিক ভারতীয় সেনার স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে অর্থায়ন করবে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ।

আজ সোমবার সকাল ১১টায় এ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণকাজের উদ্বোধন করবেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম।

সীতাকুণ্ড উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সূত্র জানায়, '৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য বীর বাঙালির সঙ্গে প্রাণ দিয়েছিলেন অগণিত ভারতীয় সেনাও। বিজয়ের ঠিক আগ মুহূর্তে ১৫-১৬ ডিসেম্বর সীতাকুণ্ডের কুমিরায় পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে সর্বশেষ বাঙালি ও ভারতীয় সেনাদের সম্মিলিত যে যুদ্ধটি হয় সেটি ছিল ভয়াবহ। এই যুদ্ধে উভয় পক্ষের বহু সেনা নিহত হয়।

সীতাকুণ্ড মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মো. আলিম উল্লাহ জানান, ওই যুদ্ধে শতাধিক ভারতীয় সেনা মারা যান। যুদ্ধ থেমে যাওয়ার পর বিভিন্ন কারণে বাংলাদেশের জন্য প্রাণ-উত্সর্গকারী সেসব ভারতীয় সেনার মৃতদেহ দেশে ফিরিয়ে নেওয়া সম্ভব ছিল না। শেষ পর্যন্ত তাদের সীতাকুণ্ড পৌর সদরের চন্দ্রনাথ ধাম মহাতীর্থের পাদদেশে অবস্থিত মোহন্ত আস্তানা বাড়ির প্রবেশমুখে সত্কার করা হয়েছিল। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় যে স্বাধীনতার এত বছরেও ওই স্থানে আত্মোত্সর্গকারী সেসব বীরের স্মরণে কোনো স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হয়নি। অনেকেই এ স্থানটি দর্শন করতে এলেও সেখানে কোনো চিহ্নই পাওয়া যায় না।

অবশেষে চট্টগ্রামের জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম মিত্রবাহিনীর সেসব বীর সেনার স্মরণে ওই স্থানে একটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের উদ্যোগ নেন।

এম এ সালাম আজ এই স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণকাজের উদ্বোধন করবেন। এ সময় উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রামের ভারতীয় দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব শুভাষিস সিনহাসহ চট্টগ্রাম ও সীতাকুণ্ডের বীর মুক্তিযোদ্ধারা। বিজয়ের মাসে নিহত ভারতীয় সেনাদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করার এ উদ্যোগ নেওয়ায় জেলা পরিষদকে ধন্যবাদ জানিয়েছে সীতাকুণ্ডের মুক্তিযোদ্ধা নেতারা, প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম সেকান্দার হোসাইন, সাধারণ সম্পাদকসহ সাংবাদিক সমাজ ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এ বিষয়ে এম এ সালাম বলেন, 'আমাদের স্বাধীনতার জন্য মিত্রবাহিনীর যেসব সেনা আত্মত্যাগ করেছিলেন তা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করতেই সীতাকুণ্ডের ওই স্থানে একটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ শুরু করছি। ' তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে এর জন্য ১৩ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে এটি সুন্দরভাবে নির্মাণ করতে যদি ব্যয় আরো বেশি লাগে প্রশাসন তাও করবে। কর্তৃপক্ষের চেষ্টা থাকবে বিজয়ের মাসেই এ কাজ শেষ করার। এম এ সালাম বলেন, 'তাহলে এ মাসেই তাঁদের প্রতি এটি উত্সর্গ করা যাবে। স্মৃতিস্তম্ভ হলে সেসব বীরের ত্যাগের কথাও সবাই জানতে পারবে। '


মন্তব্য