kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

ফেনী আ. লীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

খালেদার গাড়িবহরে হামলার নায়ক নিজাম হাজারী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ নভেম্বর, ২০১৭ ০৬:৫৫



খালেদার গাড়িবহরে হামলার নায়ক নিজাম হাজারী

চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার ঘটনাটি পূর্বপরিকল্পিত ছিল এবং এর নায়ক ফেনী-২ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী। সংবাদ সম্মেলন করে এই দাবি করেছেন ক্ষমতাসীন দলেরই ফেনী জেলা শাখার এক নেতা।

আজহারুল হক নামের এ নেতা একসময় ক্যাডার রাজনীতিতে গ্রুপপ্রধান ছিলেন।  

গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে নিজাম হাজারীর বিরুদ্ধে আরো কয়েকটি গুরুতর অভিযোগ করেন আজহারুল হক। তিনি বলেছেন, নিজাম হাজারী তাঁর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের প্রতিশোধ হিসেবেই সন্ত্রাসী-ক্যাডারদের দিয়ে মিডিয়ার ওই সব গাড়িতে হামলা চালান।  

এ ছাড়া নিজাম হাজারীর বিরুদ্ধে নিজের দলের কর্মীদের হত্যা, নির্যাতন থেকে শুরু করে দুর্নীতি, বিদেশে অর্থপাচার, প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগে মামলা দায়ের, হামলা, চাঁদাবাজিসহ নানা ধরনের গুরুতর অভিযোগ আনেন আজহারুল হক।  

ওই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ফেনী জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন, জেলা তাঁতী লীগ সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান, জেলা ওলামা লীগ সাধারণ সম্পাদক শামসুল হুদা, জেলা তাঁতী লীগের উপদেষ্টা কাজী ফারুক প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আজহারুল হক বলেন, “সম্প্রতি ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে যে হামলার ঘটনা ঘটে তা ছিল পূর্বপরিকল্পিত। কারণ সেদিন বেছে বেছে ডিবিসি, চ্যানেল আই, একাত্তর, বৈশাখী টেলিভিশন ছাড়াও প্রথম আলো ও ডেইলি স্টারসহ খালেদা জিয়ার বহরে থাকা অন্য সাংবাদিকদের বহনকারী গাড়িগুলোও ভাঙচুর করা হয়। এই পুরো ঘটনার ‘নেপথ্য’ নায়ক ছিলেন নিজাম হাজারী। বিভিন্ন গণমাধ্যমেও এসংক্রান্ত বিস্তারিত সংবাদ এসেছে।

লিখিত বক্তব্যে আজহারুল হক আরো বলেন, নিজাম উদ্দিন হাজারীর বিরুদ্ধে একটি অস্ত্র মামলা ছিল। সেই মামলায় তিনি নির্দিষ্ট মেয়াদের কম সময় সাজা খাটেন। এ ঘটনায় একটি রিট করেন জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন। এলাকায় তাঁর ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত সাখাওয়াত। রিট করার কারণে সংসদ সদস্য নিজাম তাঁর বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনসহ বিভিন্ন ধারায় ৯টি মামলা করেন।

উল্লেখ্য, আজহারুল হক ওরফে আরজু একসময় আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল হাজারীর অনুসারী ছিলেন। নিজাম হাজারীর সমর্থকরা জানায়, বর্তমানে আরজুর সঙ্গে বিএনপির একটি গ্রুপের সম্পর্ক থাকায় দলীয় সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তিনি।


মন্তব্য