kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

হাতিয়ায় হামলা করে আসামি ছিনতাই

পৌর আ. লীগ সভাপতিসহ ৩৯ জনের নামে মামলা

নোয়াখালী প্রতিনিধি   

১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ০৬:২৮



পৌর আ. লীগ সভাপতিসহ ৩৯ জনের নামে মামলা

নোয়াখালীর হাতিয়ায় পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে একটি মামলার আসামি ছাত্রলীগ নেতাকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুদ্দিন আহম্মেদসহ ৩৯ জনের নামে মামলা হয়েছে। মামলায় অজানা আসামি হিসেবে আরো দেড় শ জনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

তবে গতকাল শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

হাতিয়া থানার ওসি কামরুজ্জামান শিকদার বলছেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে হাতিয়া হাসপাতালে ঢুকে সেখানে চিকিৎসাধীন যুবলীগকর্মী আলতাফ হোসেনকে মারধর করে ও জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসী রাকিবের নেতৃত্বে একটি দল। এ ঘটনায় রাতে ছদ্মবেশে ছয় পুলিশ কর্মকর্তা রাকিবকে তাঁর বাড়ির সামনে তালুক মার্কেট এলাকা থেকে আটক করে। তখন পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুদ্দিন আহম্মেদের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে ছয় পুলিশ কর্মকর্তাকে আহত করে। তারা পুলিশের ব্যবহূত দুটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে এবং আটক রাকিবকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।  

ওসি জানান, ওই ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতেই হাতিয়া থানার এসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে সাইফুদ্দিন আহম্মেদকে প্রধান আসামি করে ৩৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১৫০ জনকে অজানা দেখিয়ে মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব থাকা হাতিয়া থানার এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, সন্ত্রাসীদের ধরার জন্য পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

এদিকে অভিযুক্ত সাইফুদ্দিন আহম্মেদ বলেন, তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ডাক্তারের পরামর্শে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে বলে তিনি দাবি করেন।

রাকিব হাতিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অথচ তাঁকে মিথ্যে মামলা দিয়ে সন্ত্রাসী বানানো হয়েছে। সাইফুদ্দিন আহম্মেদ আরো বলেন, রাকিব হাতিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। অথচ তাঁকে মিথ্যা মামলা দিয়ে সন্ত্রাসী বানানো হয়েছে।

 

 

 


মন্তব্য