kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

স্বামীর লাশ উদ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুনি স্ত্রী গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:৩০



স্বামীর লাশ উদ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুনি স্ত্রী গ্রেপ্তার

স্বামী হত্যার কথা আদালতে স্বীকার করেন রুবি

কক্সবাজারের সদর মডেল থানার  পশ্চিম লারপাড়ায় পাওয়া অজ্ঞাত পরিচয় লাশের পরিচয় ও হত্যাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাতটায় শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্নসহ স্থানীয় আবদুর শুক্কুরের জমিতে মৃতদেহটি পাওয়া যায়। মৃত ব্যক্তির নাম দেলোয়ার হোসেন (৩৫)। তার বাড়ি ওই এলাকায়ই।

তবে প্রথমদিকে তার মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে তার পরিবার বা এলাকার লোকজনের কাছ থেকে কিছু জানা যায়নি। এ অবস্থায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়।  

কক্সবাজার সদর মডেল থানা ওসি রণজিত বড়ুয়ার নেতৃত্বে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) আবুল কালাম, ইনচার্জ সৈকত পুলিশ ফাঁড়ী কক্সবাজার সদর মডেল থানা পরিদর্শক (তদন্ত) কামরুল আজম পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) মাইন উদ্দিন তদন্তে নেমে মূল আসামি মৃতের স্ত্রী রুবি আকতার ও রুবি আকতারের সহযোগী মৃতের আপন ছোট ভাই কামাল হোসেনকে গ্রেপ্তার করেন। পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নিহতের বসতঘর হতে তার ব্যবহৃত দুটি মোবাইল ফোন, মোটরসাইকেলের চাবি ও অফিসের চাবি উদ্ধার করা হয়।

পরদিন মূল আসামি রুবি আকতার বিজ্ঞ আদালতে দোষ স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষী মৃতের বড় ছেলে হৃদয় সুলতান তার মায়ের হাতে বাবার খুন হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি প্রদান করে।

স্বামী হন্তারক রুবি আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিতে জানান, ১৭ বৎসরের দাম্পত্য জীবনে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল স্বামীর সঙ্গে। বিশেষ করে দেলোয়ারের পরকিয়া প্রেমের বিষয়টি তিনি মেনে নিতে না পেরে ঝগড়া-বিবাদের একপর্যায়ে তাকে হত্যা করেন।  পরে স্বামীর ছোট ভাই ও নিজের বোনের ছেলের সহযোগিতায় লাশ বাড়ির বাইরে ফেলে দেন।  


মন্তব্য