kalerkantho

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন

বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী

কক্সবাজারে ৭০০০ রোগীকে বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার   

১২ আগস্ট, ২০১৭ ০২:০৮



কক্সবাজারে ৭০০০ রোগীকে বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে কক্সবাজারে গতকাল শুক্রবার সাত হাজার লোককে বিনা মূল্যে বিশেষজ্ঞ চিকিত্সাসেবা দেওয়া হয়েছে। গতকাল শহরের শহীদ দৌলত ময়দানে (পাবলিক হল) দিনব্যাপী এই চিকিত্সা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। জেলা আওয়ামী লীগ এই ক্যাম্পের আয়োজন করে। চিকিত্সা ক্যাম্পের সার্বিক সহযোগিতায় ছিল স্বাধীনতা চিকিত্সক পরিষদ (স্বাচিপ) ও বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)।

চিকিত্সা ক্যাম্পের আয়োজকরা জানিয়েছেন, কক্সবাজার জেলার প্রত্যন্ত এলাকায় চিকিত্সাবঞ্চিত লোকজন যাতে চিকিত্সাসেবা পায় সে জন্য বিনা মূল্যের সাড়ে তিন হাজার কার্ড বিতরণ করা হয়েছিল। কিন্তু প্রবল বৃষ্টি উপেক্ষা করে চিকিত্সা ক্যাম্পে ভিড় জমায় কয়েক হাজার চিকিত্সাবঞ্চিত অসহায় লোক। তাদের সবাইকে সেবা দেওয়া হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা বলেন, জাতির জনকের আত্মার শান্তির উদ্দেশ্যে এ চিকিত্সা ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। এতে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর প্রায় সাত হাজার মানুষ চিকিত্সাসেবা নিয়েছে।

বিএমএর জেলা শাখার সভাপতি ও জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. পু চ নু জানান, কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ২৯ জন বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক এবং সদর হাসপাতালের ২৭ জনসহ ৫৬ জন চিকিত্সক চিকিত্সা ক্যাম্পে রোগীদের সেবা দিয়েছেন।

স্বাচিপের জেলা শাখার সভাপতি ডা. মাহবুবুর রহমান জানান, চিকিত্সা ক্যাম্পে চিকিত্সা সেবার পাশাপাশি ১৫ লাখ টাকার ওষুধও দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, চিকিত্সা ক্যাম্পে ইসিজি, এক্স-রে, ডায়াবেটিস পরীক্ষা, আলট্রাসনোগ্রাফসহ বিভিন্ন পরীক্ষার সুযোগ ছিল। চিকিত্সা ক্যাম্পে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের ছাত্র ও ইন্টার্ন চিকিত্সকরা সহযোগিতা করেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘জাতির জনক সারা জীবনই আন্দোলন-সংগ্রাম করেছেন এ দেশের হতদরিদ্র মানুষের অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান ও চিকিত্সাসেবা নিশ্চিত করার জন্য। তাই বঙ্গবন্ধুর আত্মা যাতে শান্তি পায় সে জন্য এ আয়োজন করেছি। ’


মন্তব্য