logo
আপডেট : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৫:১৯
অর্জুনকে আমার সাথে তুলনা করবেন না: টেন্ডুলকার

অর্জুনকে আমার সাথে তুলনা করবেন না: টেন্ডুলকার

বাবা ছিলেন বিশ্বখ্যাত ব্যাটসম্যান। অকেশনাল বোলিংটাও মন্দ করতেন না। তার ছেলে অর্জুন টেন্ডুলকার হয়ে উঠেছে পুরোদস্তুর পেসার। ব্যাটিংটাও ভালো করে। ভারত ও ভারতের বাইরে বেশ কিছু বয়সভিত্তিক লিগে সুনাম কুড়িয়েছে অর্জুন। মিডিয়ায় অর্জুনের খবর হওয়া মানেই শচীন টেন্ডুলকারকে টেনে আনা। কিন্তু এই বিষয়টাতেই আপত্তি মাস্টার ব্লাস্টারের। তিনি চান, ছেলে নিজের মত করেই ক্রিকেটাঙ্গণে প্রতিষ্ঠিত হোক।

শচীন পুত্র অর্জুনের বয়স ১৮। কিন্তু বিখ্যাত বাবার ধারে কাছে এখনও পৌঁছতে পারেননি তিনি। এ নিয়ে প্রশ্ন করলে শচীন বলেন, 'অর্জুন চেষ্টা করছে। আমার বাবা যেমন আমাকে স্বাধীনতা দিয়েছিলেন, আমিও ঠিক তেমনই আমার ছেলেকে নিজের পছন্দমত জীবন বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা দিয়েছি। ও যেটাই হতে চায় না কেন, তাকে সেরাটা উজার করে দিতে হবে। এর কোনো শর্টকাট নেই।'

শচীনকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, ছেলের মধ্যে তিনি ভবিষ্যতের শচীনকে দেখতে পান কিনা। জবাবে তিনি বলেন, 'অর্জুন অর্জুনই হবে, শচীন নয়। তবে ক্রিকেটার হতে হলে তাকে খেলা ও নিজের প্যাশনে ফোকাস রাখতে হবে। একজন বাবা হিসেবে আমি তাই চাই। তুলনা টানা হবেই। কিন্তু আমার বাবা আমাকে বলতেন, যে কাজই করা হোক, তাতে ফোকাস থাকা অত্যন্ত জরুরি। তুলনা করা মনসংযোগে সমস্যা সৃষ্টি করে।'

কিছুদিন আগে অস্ট্রেলিয়ায় বয়সভিত্তিক টি-টোয়েন্টি সিরিজে অল-রাউন্ড পারফরম্যান্সের দেখিয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছেন অর্জুন। ৪ ওভারে ৪ উইকেট নিয়েছেন, ২৭ বলে করেছেন ৪৮ রান। বিশ্ব মিডিয়ায় তাকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে অনেক। কিন্তু অর্জুনকে জাতীয় দলে দেখা যাবে কবে? এমন প্রশ্নের জবাবে শচীন নিজেকে তৈরী করাকেই গুরুত্ব দেন। শচীনের কথায়, 'জীবনে উত্থান, পতন আছেই। কিন্তু প্যাশন থাকলে এইসব বাধা বিপত্তি উৎরে যাওয়া সম্ভব।'

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com