logo
আপডেট : ৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:৩৭
হাথুরুর দেওয়ার কিছু ছিল না, তাই চলে গেছে: হ্যালসল

হাথুরুর দেওয়ার কিছু ছিল না, তাই চলে গেছে: হ্যালসল

জাতীয় দলের সহকারী কোচ রিচার্ড পাইবাস। ফাইল ছবি

চন্দ্রিকা হাথুরুসিংহের শিষ্য হিসেবে বাংলাদেশ সফরে আসছে শ্রীলঙ্কা। অথচ হাথুরু চলে যাওয়ার পর টিম টাইগার একরকম অভিভাবকহীন ছিল। টেকনিক্যাল ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন সেই শুন্যতার অনেকখানি মিটিয়েছেন। 'ড্যামেজ কন্ট্রোল' করতে দলের দুই সিনিয়র সদস্য এবং অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা আর সাকিব আল হাসানকে এই সিরিজে 'কোচ' হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন বিসিবি সভাপতি।

হাথুরুর ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত জাতীয় দলের সহকারী কোচ রিচার্ড হ্যালসল মনে করেন, ক্রিকেটারদের নাকি আর বিশেষ কিছু দেওয়ার ছিল না হাথুরুসিংহের। তাই তিনি ইস্তফা দিয়ে নিজ দেশের জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছেন। তার মতে, হাথুরুকে ছাড়া আরও দায়িত্বশীল হবে টাইগার ক্রিকেটাররা। এক্ষেত্রে সিনিয়র ক্রিকেটাররা বড় ভূমিকা রাখবেন।

হ্যালসলের ভাষায়, 'আমার মনে হয়, চন্দ্রিকার চলে যাওয়ার মূল কারণ, সে এই মুহূর্তে এই ক্রিকেটারদের খুব বেশি কিছু দিতে পারত না। আমার মতে, দলের সব ক্রিকেটাররা এখন দারুণ অবস্থানে আছে। চন্দ্রিকার না থাকা ওদের আরও বেশি করে ভাবাবে এবং আরও বেশি দায়িত্বশীল করে তুলবে।'

এছাড়া দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা মানসিকভাবে সবাইকে চাঙ্গা রাখবেন বলেও বিশ্বাস হ্যালসলের। তার ভাষায়, 'বাংলাদেশের ভাগ্য খুবই ভালো যে, দলে অসাধারণ সব সিনিয়র ক্রিকেটার আছে। দুই অধিনায়ক মাশরাফি ও সাকিবের সঙ্গে মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ ও তামিম আছে। ওরা সবাইকে চাঙ্গা করে রাখতে পারবে। সবার সঙ্গে আরও বেশি মিশতে পারবে। বয়স বাড়লে মানুষ আরও বেশি দায়িত্বশীল হয়। এই দলের জন্য এই সময়টুকু কিন্তু ভীষণ রোমাঞ্চকর!'

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com