logo
আপডেট : ১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ১৫:৪১
হরর ক্লাব : হরর ছবি নির্মাণকালেই ঘটে ভূতের আগমন!

হরর ক্লাব : হরর ছবি নির্মাণকালেই ঘটে ভূতের আগমন!

ছবি অনলাইন

প্রায়ই হরর ছবির সেটে এমন সব ভৌতিক দৃশ্যের অবতারণা করা হয় যে, তা যেন সত্যিকার ভূতকেই আকর্ষণ করে। হরর ছবিতে অভিনয় করেছেন বলিউডের অনেক অভিনেতাই। কিন্তু বাস্তবিক জীবনে তাদের অনেকের জীবনেই অলৌকিক অভিজ্ঞতা রয়েছে। ঘটনার সময় সত্যিই ভূত আসুক আর না আসুক, এসব ঘটনায় যে তারা সত্যিই ভয় পেয়েছিলেন, তা নিশ্চিত। তারকারা নিজের মুখেই শেয়ার করলেন সেইসব অভিজ্ঞতা। তেমন তিনজনের অভিজ্ঞতা পড়ুন আজ।

নওয়াজউদ্দীন সিদ্দিকী
আত্মা ছবির শুটিং চলাকালে সেটে অভিনেতা নওয়াজের পেছন দিকে একটি ফটো ফ্রেম ছিল। কোনো হাওয়া না দেওয়া সত্ত্বেও ফটোফ্রেমটি কীভাবে পড়ে গেল, তা নিজে চোখে দেখেও কোনো ব্যাখ্যা পাননি নওয়াজ। আর এ ঘটনায় ভয়ও পেয়েছিলেন তিনি।

বিপাশা বসু
গুনাহ ছবির শুটিং চলাকালে বিপাশা বসুর কিছু অলৌকিক অভিজ্ঞতা হয়েছিল। ছবির শুটিংয়ের সময়ে তিনি যে হোটেলে থাকতেন, সেখানে কোনো সংলাপই মনে রাখতে পারতেন না। এর জন্য তিনি পরের দিনই তার কক্ষ পাল্টে ফেলেছিলেন। আর তার পরে কোনো সমস্যা হয়নি। তবে সে ঘটনার কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি।

রণবীর সিং
অভিনেতা রণবীর বার বারই বলে এসেছেন ভূত বা অলৌকিক বিষয়ে তিনি বিশ্বাস করেন না। কিন্তু তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার পরে তার এই ধারণা ভেঙে গিয়েছিল। বাজিরাও মস্তানি ছবির শুটিং চলাকালে, তার মনে হচ্ছিল কেউ যেন তার কাছে কাছেই ঘোরাফেরা করছেন। তার মনে হয়েছিল সে হয়তো স্বয়ং পেশোয়া বাজিরাও। যদিও এ ঘটনার কোনো ব্যাখ্যা নেই।

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com