logo
আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২২
মাগুরা বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল শেখ রাসেল চ্যাম্পিয়ন

মাগুরা বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল শেখ রাসেল চ্যাম্পিয়ন

মাগুরার মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে আজ রবিবার অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে ফাইনাল খেলায় ঢাকা শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড ট্রাইবেকারে  ৫-৪ গোলে বাংলাদেশ নৌবাহিনী ফুটবল দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

তুমুল উত্তেজনাপূর্ণ ও আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের নির্ধারিত ৯০ মিনিট গোলশুন্যভাবে শেষ হলে খেলা ট্রাইব্রেকারে গড়ায়। ট্রাইব্রেকারে গোলের জন্য শেখ রাসেলের বাছাই করা ৫ খেলোয়াড়ের প্রত্যেকে তাদের দক্ষতা ও চিরাচরিত নৈপুণ্যে নির্ধারিত গোল করতে স্বক্ষম হয়। নৌবাহিনীর ৫ খেলোযাড়ের মধ্যে ৪ জনের বল শেখ রাসেলের গোলে জড়ায়। অন্যদিকে দলের দ্বিতীয় বলে নৌবাহিনীর ওয়েলসনের বল শেখ রাসেলের গোলরক্ষক শহিদুল ইসলাম জিয়া অনন্য পারদর্শিতায় প্রতিহত করলে ৫-৪ ব্যবধানে বিজয়ী হয় শেখ রাসেল। টুর্নামেন্টে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ফুটবলার অরুপ কুমার বৈদ্য।

যুব ও ক্রীড়া  প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী দলের হাতে  চ্যাপিম্পয়ন ট্রফি তুলে দেন। এ সময় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সহকারি  সচিব অ্যাড. সাইফুজ্জামান শিখর, সাবেক কৃতি ফুটবলার আশরাফ হোসেন চুন্নু, বাদল রায়, মাগুরা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খান, মাগুরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পংকজ কুমার কুন্ডু, পৌর মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রস্তম আলী, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক  মকবুল হোসেন ও টুর্ণামেন্টের আহবায়ক জিল্লুর রহমান লাজুক, আছাদুজ্জামান একাডেমীর সভাপতি ফরিদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

গতকালের ফাইনাল খেলায় ২৫ হাজার মানুষের ধারন ক্ষমতাসম্পন্ন মাগুরা স্টেডিয়ামের দর্শক গ্যালারি কানায় কানায় পূর্ণ ছিল। সন্ধ্যায় স্থানীয় ও ঢাকার শিল্পীবৃন্দ ওপেন কনসার্টে সংগীত পরিবেশন করেন। এছাড়া ছিল লেজার শো ও আতশ বাজি উৎসব। এটিএন বাংলা খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করে।

বসুন্ধরা সিমেন্ট-এর পৃষ্ঠপোষকতায় গত ২০ জানুয়ারি এ টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছিল। মাগুরা জেলা সংস্থার সার্বিক  সহযোগিতায় মাগুরা আছাদুজ্জামান ফুটবল একাডেমী এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ নৌবাহিনী, শেখ রাসেল, ঢাকা মোহামেডান ও আবাহনী লিমিটেডসহ মোট ১২টি ফুটবল দল অংশ নেয়।  
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, ‘বাংলাদেশ মানুষের প্রাণের খেলা হচ্ছে ফুটবল। যার প্রমাণ মিলেছে মাগুরায় আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামের দর্শক সমাগমে। এ থেকে বোঝা যায় বাংলাদেশের মানুষ এখনো ফুটবল ভালবাসে। এ কারণেই বর্তমান সরকার ফুটবলসহ সব ধরনের খেলার সোনালী অতীত ফেরাতে উপজেলা পর্যায়ে মিনি স্টেডিয়াম নির্মানসহ জেলার স্টেডিয়ামগুলোকে উন্নত মানে রূপান্তরিত করছে। মাগুরা স্টেডিয়াম ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার জন্য সিংহভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও উন্নয়ন হবে’।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত আছাদুজ্জামান ফুটবল একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, ‘এখন থেকে প্রতিবছরই মাগুরায় এই একাডেমীর পক্ষ থেকে এ ধরনের ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হবে। ভাবিষ্যতে জাতীয় দলের পাশাপাশি জেলা পর্যায়ের দলগুলোর সংখ্যা বাড়ানো হবে’। টুর্নামেন্টে সহযোগিতার জন্য তিনি বসুন্ধরা গ্রুপ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান।

সম্পাদক : ইমদাদুল হক মিলন,
নির্বাহী সম্পাদক : মোস্তফা কামাল,
ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা, বারিধারা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় বিভাগ : বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বারিধারা, ঢাকা-১২২৯। পিএবিএক্স : ০২৮৪০২৩৭২-৭৫, ফ্যাক্স : ৮৪০২৩৬৮-৯, বিজ্ঞাপন ফোন : ৮১৫৮০১২, ৮৪০২০৪৮, বিজ্ঞাপন ফ্যাক্স : ৮১৫৮৮৬২, ৮৪০২০৪৭। E-mail : info@kalerkantho.com