kalerkantho


মজার বিজ্ঞান

হালকা পানি ভারী পানি

নাবীল অনুসূর্য

৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



হালকা পানি ভারী পানি

অঙ্কন : মাসুম

একই রকম দুটি বোতলে একই পানি সমান পরিমাণে ভরে যদি বলা হয়, একটা বোতলের পানি হালকা, আরেকটার পানি ভারী, কথাটা কি বিশ্বাস হবে? হওয়ার কথাই না। কিন্তু বিজ্ঞানের জাদুতে সেটাও করে দেখানো সম্ভব। আর তার জন্য খুব বেশি কষ্টও করতে হবে না। স্রেফ একটা বোতলে গরম পানি ভরতে হবে, আরেকটায় ঠাণ্ডা পানি। তারপরই দেখানো যাবে জাদু। একই পানি গরম করলে হালকা হয়ে যাবে, ঠাণ্ডা করলেই ভারী।

এই ভেলকি দেখানোর জন্য লাগবে স্রেফ দুটি স্বচ্ছ বোতল, একটি কার্ডবোর্ডের টুকরা, আর পানি। সঙ্গে অবশ্য একটু রংও লাগবে। কারণ পানিতে রং না মেশালে তো শুধু চোখে দেখে আলাদা করে বোঝা যাবে না!

ভেলকি দেখানোর প্রক্রিয়াটাও খুব সোজা। প্রথমে একটা বোতলে খানিকটা রং নিতে হবে। লাল বা নীল রং নিলেই ভালো। তারপর সেই বোতলটা গরম পানি দিয়ে ভর্তি করতে হবে। তাহলে রং গোলানোর কাজটাও হয়ে যাবে। মানে গরম পানির রং হয়ে যাবে লাল বা নীল। অন্য বোতলটা ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভর্তি করতে হবে।

ব্যস, ভেলকির জন্য প্রস্তুতি নেওয়া শেষ। এবার ঠাণ্ডা পানি ভরা বোতলটার মুখে কার্ডবোর্ডের টুকরাটা শক্ত করে ধরে বোতলটা উল্টে দিতে হবে। এমনভাবে উল্টাতে হবে, যাতে কার্ডবোর্ডের ফাঁক দিয়ে পানি বের না হতে পারে। তারপর কার্ডবোর্ডসহ ঠাণ্ডা পানির বোতলটি গরম পানির বোতলের ওপরে রাখতে হবে। দুই বোতলের মুখ এক জায়গায় করে, কৌশলে কার্ডবোর্ডটি সরিয়ে ফেলতে হবে। যাতে দুই বোতল একদম মুখোমুখি থাকে। আর এক বোতলের পানি অন্য বোতলের পানির সঙ্গে মিশে যেতে পারে। এবার শুরু হবে ভেলকি। ধীরে ধীরে রং গোলানো পানি ওপরের দিকে উঠতে শুরু করবে। মানে গরম পানি ঠাণ্ডা পানির ওপরে ভেসে উঠবে। অর্থাৎ প্রমাণ হয়ে গেল, গরম পানিটা হালকা, ঠাণ্ডা পানিটা ভারী।

বিজ্ঞানের এই জাদু দেখানো খুব সোজা হলেও বুঝতে গেলে বেশ কঠিন। সোজা করে বললে, পানি যখন গরম করা হয়, তখন এর অণুগুলো দূরে দূরে সরে যায়। ফলে পরিমাণ সমান থাকলেও আয়তনে বেড়ে যায়। তাই ঠাণ্ডা পানির চেয়ে হালকা হয়ে যায়। এ কারণেই নিচে থাকার পরেও রং গোলানো গরম পানি ওপরের বোতলের ঠাণ্ডা পানির ওপরে উঠে যায়।



মন্তব্য