kalerkantho


বৈশাখের দুই ছবি

পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে কাল মুক্তি পাবে দুটি ছবি—নায়ক আলমগীর পরিচালিত ও অভিনীত ‘একটি সিনেমার গল্প’ এবং ইয়ামিন হক ববি প্রযোজিত ও অভিনীত ‘বিজলী’। ছবি ও পহেলা বৈশাখ নিয়ে তাঁদের সঙ্গে কথা বলেছেন সুদীপ কুমার দীপ

১২ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



বৈশাখের দুই ছবি

আলমগীরের সঙ্গে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, আরিফিন শুভ ও চম্পা—‘একটি সিনেমার গল্প’র চার অভিনয়শিল্পী

এবারের পহেলা বৈশাখটা আলমগীরের জন্য বেশ আনন্দের। ২২ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে তাঁর পরিচালিত কোনো ছবি। এই উপলক্ষে দীর্ঘদিন পর আবার নিয়মিত যাওয়া-আসা করছেন চলচ্চিত্রাঙ্গনে। নায়ক হিসেবে তাঁর ব্যস্ত দিনগুলোতে যেভাবে যাতায়াত করতেন, অনেকটা সে রকমই। ‘একটি সিনেমার গল্প’ নিয়ে দারুণ আশাবাদী তিনি। চলচ্চিত্রজীবনের ৪৬ বছরের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েছেন এই ছবিতে। দর্শক সিনেমার ভেতরে দেখবে আরেকটি সিনেমা। একজন তারকার, একজন নির্মাতার ব্যক্তিজীবন কেমন হয়, তাদের ভালো লাগা, ভালোবাসা, পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক—এসব তুলে ধরেছেন ছবিটিতে। আলমগীর বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই দেখছি বাংলা সিনেমায় গল্পের অভাব। শেষ পর্যন্ত দায়িত্বটা নিজের কাঁধেই তুলে নিলাম। এই বৈশাখে খাঁটি বাঙালিয়ানা একটা ছবি উপহার দিচ্ছি দর্শককে। আমার অভিজ্ঞতায় বলে, ছবিটি দর্শকের ভালো লাগবে।’

আলমগীর চাইলে ঈদেও মুক্তি দিতে পারতেন এই ছবি। তিনি সেটা করেননি বেশ কিছু যুক্তিতে, ‘পহেলা বৈশাখ আমাদের ঐতিহ্য। আমাদের সময়ে পহেলা বৈশাখে বড় বড় ছবি মুক্তি পেত। অনেক ক্ষেত্রে ঈদের চেয়েও সেল বেশি হতো। অথচ শেষ দশটা বছর বলার মতো তেমন ভালো ছবি পহেলা বৈশাখে আসেনি। দর্শকও এই উৎসবে হলে যাওয়ার কথা ভুলতে বসেছে। এখন পহেলা বৈশাখ মানে বাসায় বসে পান্তা-ইলিশ খাওয়া আর পরিবারকে সময় দেওয়ার। এই রীতি ভাঙতে চাই। আবার সবাইকে হলে ফিরিয়ে আনতে চাই।’

‘একটা সিনেমার গল্প’ মুক্তি পাবে অর্ধশতাধিক হলে। তাঁর মতে, বাংলাদেশের ইতিহাসে আজ পর্যন্ত যত ছবি রেকর্ড হিট করেছে বেশির ভাগই শুরুতে কম হলে মুক্তি পেয়েছিল। ‘মনপুরা’ বা ‘আয়নাবাজি’র উদাহরণ টেনে বলেন, ‘আমার ছবিটার মেরিট আমি জানি। এত দিনের চলচ্চিত্রজীবনে একটা জিনিস বেশ ভালোভাবে অনুধাবন করতে পেরেছি—দর্শকদের চাহিদা। তারা কী চায় সেটা ভালো বুঝি। দর্শকের পছন্দের সব উপাদানই আমার ছবিতে বিদ্যমান।’

‘একটি সিনেমার গল্প’র সঙ্গে মুক্তি পাবে ‘বিজলী’, তা নিয়ে অবশ্য চিন্তার কিছুই দেখছেন না আলমগীর, বরং অভিনন্দন জানিয়েছেন চলচ্চিত্রটির সঙ্গে জড়িত সবাইকে। তবে কিছুটা অভিমানও লুকিয়ে আছে তাঁর মনে। বলেন, ‘প্রযোজক সমিতিতে খোঁজ নিয়ে জেনেছি, ছবিটি ৩০ মার্চ মুক্তি দেওয়ার জন্য ডেট নেওয়া ছিল। অথচ তারা নিয়ম ভেঙে মাত্র একটি হলে মুক্তি দিয়েছিল। এখন পহেলা বৈশাখে সারা বাংলাদেশে মুক্তি দিচ্ছে। হ্যাঁ, উৎসবে দুটি কেন তিনটি ছবিও মুক্তি পেতে পারে। কিন্তু তার জন্য ছলচাতুরি করতে হবে কেন?’

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, আরিফিন শুভর রসায়ন নাকি দারুণ জমেছে। আলমগীর মনে করেন, ছবির চরিত্র অনুযায়ী ঋতুই বেস্ট সিলেকশন। আরিফিন শুভও নায়ক থেকে অভিনেতা রূপে বেরিয়ে এসেছেন এখানে। ছবিতে সুরকার হিসেবে অভিষেক ঘটবে কিংবদন্তি গায়িকা রুনা লায়লার।

এবারের পহেলা বৈশাখের আগেই ছেলেবেলার আমেজ পাচ্ছেন। উৎসব উৎসব লাগছে তাঁর কাছে। বলেন, ‘সব কিছুই ছবিটিকে ঘিরে। মাঝখানে অনেক দিন অভিনয় থেকে দূরে ছিলাম, নির্মাণও করিনি। এখন মনে হচ্ছে, সিদ্ধান্তটা সঠিক ছিল না। এই যে দর্শক অধীর আগ্রহে আমার ছবিটার জন্য বসে আছে, ছবিটা তারা কিভাবে গ্রহণ করবে, সেটা ভাবতেই অন্য রকম অনুভূতি ছুঁয়ে যাচ্ছে। এখন থেকে বছরে অন্তত একটা হলেও ছবি বানাব। আমার সমসাময়িক যারা তাদেরও আমন্ত্রণ জানাব ছবি নির্মাণের।’

 

দেশের প্রথম সুপারহিরোইন ছবি ‘বিজলী’

পহেলা বৈশাখ ববির জন্য খুব লাকি। ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ছবি ‘খোঁজ—দ্য সার্চ’ ও ‘দেহরক্ষী’ মুক্তি পেয়েছিল পহেলা বৈশাখেই। তাই নিজের প্রযোজিত প্রথম ছবি ‘বিজলী’ এই উৎসবেই মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে সিদ্ধান্তটা যে ভুল হয়নি তা বেশ ভালো করেই আঁচ করতে পারছেন ববি। বলেন, ‘এক মাস আগে থেকেই হল বুকিং শুরু হয়েছে। এটা শুভ ইঙ্গিত। ৮ এপ্রিল ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার পর থেকে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছি। হল মালিকরাও ফোন দিচ্ছেন। মুক্তির আগেই আমাকে হিট তকমা দিচ্ছেন তাঁরা। আর কী চাই! শতাধিক হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ছবি। এটা অনেক বড় সুখবর।’ ইফতেখার চৌধুরীর ‘বিজলী’তে ববির নায়ক পশ্চিমবঙ্গের মডেল-অভিনেতা রণবীর। তাঁকে নেওয়ার কারণও জানালেন, ‘ছবিতে প্রচুর সময় দিতে হয়েছে। দেশের কোনো নায়ক নিলে এত সময় পেতাম না। রণবীর পেশাদার, পরিচালক যেভাবে বলেছেন সেভাবেই কাজ করেছেন। দেশীয় নিলে সেটা সম্ভব হতো না, আমাদের কম্প্রোমাইজ করতে হতো।’

রণবীর ছাড়াও ছবিতে অভিনয় করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন, আনিসুর রহমান মিলন, দিলারা জামান ও ভারতের শতাব্দী রায়। গানগুলোর সংগীত করেছেন আকাশ, আহমেদ হুমায়ূন ও আরমান মালিক। গেয়েছেন বলিউডের নামকরা সব শিল্পী। এর মধ্যে ‘পার্টি পার্টি’ গানটা বেশ হিট করেছে ইউটিউবে। ছবিটি ব্যবসাসফল না হওয়ার কোনো কারণ দেখেন না ববি, ‘বাংলাদেশের প্রথম সুপারহিরোইন ছবি। স্পেশাল ইফেক্টগুলো যে কারো ভালো লাগার মতো। ছবির লোকেশনগুলো দর্শকের জন্য নতুন। শুটিং হয়েছে আইসল্যান্ড, মরিশাস, বাংলাদেশ ও ভারতে। গান ও মারপিটের কোরিওগ্রাফিতেও রয়েছে ভিন্নতা।’ ‘বিজলী’র সঙ্গে মুক্তি পাবে ‘একটি সিনেমার গল্প’। ববি চান দুটি ছবিই ভালো ব্যবসা করুক। যেকোনো উৎসবে দুটি ছবি মুক্তি পেতেই পারে, এ নিয়ে রেষারেষি কিংবা দ্বন্দ্বে জড়ানোর কিছু নেই। দর্শককে অনুরোধ করেছেন দুটি ছবিই দেখতে।

এবারের পহেলা বৈশাখের দিনটা হলে হলে কাটাতে চান ববি। শুরু করবেন ঢাকার হলগুলো দিয়ে। এরপর যাবেন গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জের হলে। পরের সপ্তাহে বিভিন্ন জেলা শহরে যাওয়ার কথাও ভাবছেন তিনি।



মন্তব্য