kalerkantho


ভুল সবই ভুল

লাইকা মহাশূন্যে প্রথম প্রাণী

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



লাইকা মহাশূন্যে প্রথম প্রাণী

না, লাইকা নামের কুকুরটি নয়; বরং একদল মাছি প্রথম প্রাণী নভোচারী। এক-দুই বছর নয়, লাইকার যাওয়ার ১০ বছর আগেই মাছিগুলো মহাশূন্যে গিয়েছিল। লাইকা গিয়েছিল ১৯৫৭ সালে, আর মাছিগুলো ১৯৪৭ সালে। আমেরিকার সামরিক বিজ্ঞানীরা মাছিগুলো মহাশূন্যে পাঠিয়েছিলেন। এদের জীবন্ত ফিরিয়েও আনা হয়েছিল। তারপর ১৯৪৮ থেকে ১৯৫১ সালের মধ্যে কিছু বানর ও ইঁদুর পাঠিয়েছিলেন আমেরিকার বিজ্ঞানীরা। কিন্তু এগুলোর কাউকে জীবিত ফিরিয়ে আনা যায়নি। সোভিয়েত বিজ্ঞানীদের এ ক্ষেত্রে ভাগ্যবান বলতে হয়। তাঁরা ১৯৫১ সালে দুটি কুকুর মহাশূন্য থেকে জীবিত ফেরত পেয়েছিলেন।

তখনো বিজ্ঞানীরা পরিষ্কার জানতেন না, ওজনহীনতার প্রভাব প্রাণীদের ওপর কিরূপ হয়। তাই মেরুদণ্ডি, অমেরুদণ্ডি, স্তন্যপায়ী, যেমন : মাছ, মাকড়সা, খরগোশ, মৌমাছি, কুকুর, পিঁপড়া, ব্যাঙ ইত্যাদি অনেক কিছুই পাঠানো হয়েছিল। তবে একটা ব্যাপারে লাইকা এগিয়ে, তা হলো এই কুকুরটিকেই প্রথম কক্ষপথে পাঠানো হয়েছিল। অন্যরা উপকক্ষপথে পরিভ্রমণ করেছে।



মন্তব্য