kalerkantho

অফলাইন

অনলাইনে মজার মজার গল্প, বুদ্ধিদীপ্ত কৌতুক, সাম্প্রতিক বিষয়-আশয় নিয়ে নিয়মিত স্ট্যাটাস দিয়ে যাচ্ছেন পাঠক-লেখকরা। সেগুলোই সংগ্রহ করলেন ইমন মণ্ডল

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



অফলাইন

বিয়ে

বাড়িতে পাঁচবার বিয়ের কথা কইছি! করায় নাই। আরো দুইবার কমু। করাইলে করাইব না করাইলে নাই। আমার এত বিয়ে করার শখ নাই।

শাখাওয়াত হোসেন

লাভ

যদি ‘practice makes a man perfect’ হয়, আবার যদি ‘Nobodoy is perfect’—এই প্রবাদবাক্যটি সত্যি হয়, তাহলে এত practice করে কী লাভ?

অর্পণ দাশগুপ্ত

 

পুনঃপ্রচার

কোনো টিভি চ্যানেল যদি আজকাল বলে ‘দর্শকের অনুরোধে পুনঃপ্রচার’, বুঝবেন ডাহা মিথ্যা কথা। কারণ, প্রচারিত যেকোনো অনুষ্ঠানই এখন ইউটিউবে পাওয়া যায়। তাহলে কোন দুঃখে দর্শক টিভিওয়ালাদের কাছে পুনঃপ্রচারের অনুরোধ করবে?

ইকবাল খন্দকার

শিশু

শিশু একটা উভলিঙ্গ শব্দ। এইটা প্রায় সবাই জানেন। কিন্তু ক্যান, তা কি জানেন? না জানলেও সমস্যা নাই, ম্যা হু না! একটা কইতেছি দেখেন তো চলে কি না—একমাত্র শিশুরাই নিশ্চিন্তে নির্ভাবনায় রণে-বনে জলে-জঙ্গলে হিশি (HeShe) করতে পারে। এক লগে ঐব আর ঝযব-কে সদা-সর্বত্র ধারণ করার এই গুণই বোধ হয় তারে ফেলছে উভলিঙ্গে।

জগলুল হায়দার

অনুবাদ

বাংলা : আপনার স্ত্রী বাহিরে দাঁড়িয়ে আছেন।

ইংরেজি : Your wife is outstanding!

অনিক দেবনাথ

 

পানি

বাসা ভাড়া নেওয়ার পর প্রথম বর্ষাতেই সব ঘরে ছাদ চুইয়ে বৃষ্টির পানি পড়তে দেখে বাড়ির মালিককে অভিযোগ করলেন ভাড়াটিয়া। বাড়ির মালিক গম্ভীর হয়ে বললেন, ভাই এটা তো আমার দোষ না, আমি ভাড়া দেওয়ার সময় বলেছিলাম, আমার বাসার প্রত্যেক ঘরেই পানির পর্যাপ্ত সুব্যবস্থা রয়েছে।

চঞ্চল ভৌমিক

টুথব্রাশ কেনা

রাতে পরিচিত এক দোকানে গেলাম টুথব্রাশ কিনতে...

—দাদা, টুথব্রাশ আছে?

—হুম? (ভ্রু কুঁচকে)

—ব্রাশ আছে দাদা?

(মনে হলো বোঝেনি, ততক্ষণে আমিও নিজের ভুলটা বুঝে গেছি। আবার জিজ্ঞেস করলাম...)

—বিরাশ আছে দাদা?

—ও, বিরাশ? সিডা কবা তো! শোনো ভাইডি, বিদ্যে তুমার ঝুলিতি রাহ, এলাকার ছল, এলাকার মতো কথা কবা, বুঝিছ?

নীলকণ্ঠ জয়

 

বাঁশ

বাঙালি বরফের পেছনেও বাঁশ দিতে ছাড়েনি!

-আবার তার নামও দিয়েছে আইসক্রিম!

মুকুল আহমেদ

 

‘নাশপতি’

ফলটা খেলে কি জামাই মরে যায়? নইলে কেন একটা ফলের নাম ‘নাশপতি’ হতে যাবে?

আরকানুল ইসলাম

 

রং নাম্বার

—স্যরি, আপনি রং নাম্বারে কল করেছেন...!

—হুম, আপনি রং নাম্বার ইউজ করেন কেন?

সোহানূর রহমান অনন্ত

 

মেয়ে—কী করো?

ছেলে—বাসায় তেলাপোকার ওষুধ দিই।

মেয়ে—কেন? তোমার বাসার তেলাপোকারা কি অসুস্থ?

 

জুবায়ের হোসেন জিতু

গার্লফ্রেন্ড.বেকার থাকা অবস্থায় গার্লফ্রেন্ড ছেড়ে যায় পকেট ফুটা বলে আর করপোরেট অবস্থায় গার্লফ্রেন্ড ছেড়ে যায় সময় নেই বলে।

ফাহিম রাজ

 

ইলিশ.

ইলিশের দাম আর কত কমবে! এইটা যে মাছের রাজা, সেই খেয়াল আছে!

পলাশ মাহবুব

 

পরামর্শ

দামি বাইক দেখে পাগল হইও না মেয়ে। দুই লাখ টাকা খরচ করে কেউ শুধু একজনের জন্য বাইক কেনে না!

মিকসেতু মিঠু

আগে-পরে

অ্যাড করার আগে : ভাই কমেন্ট করার অধিকার দেন, এমন কইরেন না। প্লিজ! প্লিজ, ভাই! আমি আপনার অন্ধভক্ত।

অ্যাড করা নিয়ে রিপ্লাই দেওয়ার পর : ভাই, প্লিজ, অ্যাড করেন! আপনার ভক্ত আমি।

অ্যাড করার প্রথম দুই মাস : দারুণ লিখেছেন ভাই, স্যালুট।

অ্যাড করার তিন থেকে ছয় মাস : ভাই, শেয়ার দিলাম [ট্যাগসহ]।

অ্যাড করার ছয় মাস থেকে বছরের মধ্যে : ভাই, শেয়ার দিছিলাম, দেখে নাই মনে হয় [সংগৃহীত লিখে শেয়ার দিয়েছে]।

অ্যাড করার বছরখানেক পর থেকে : ইদানীং আপনার লেখা আগের মতো নাই।

অ্যাড করার দ্বিতীয় বছর : শেষ দুইটা লেখা ভাল্লাগছে। লাইক কমেন্ট করতে পারি নাই, তবে ভাল্লাগছে। জানাইলাম।

অ্যাড করার দুই বছর পর থেকে : এই লেখার প্রথমটা ভালো হয়েছে, ওই লেখার মাঝেরটা, আর কালকের লেখাটা ভাল্লাগে নাই, ভাই।

অ্যাড করার তিন বছরে, তত দিনে তার নিজস্ব একটা সার্কেল হয়ে যায় : আপনার লেখা ইদানীং পড়ার সময় পাচ্ছি না, ভাই। তবে পড়ব। আপনার লেখা ভাল্লাগে, এটা কিন্তু আমি স্বীকার করি।

ইশতিয়াক আহমেদ

আপনার লেখা মজার স্ট্যাটাস অফলাইন পাতায় ছাপাতে চাইলে নাম-ঠিকানাসহ স্ট্যাটাসটি মেইল করুন মযড়ত্ধত্ফরস—ghorardim@kalerkantho.com-এই ঠিকানায়

 



মন্তব্য