kalerkantho


ফ্যাশন

বৈশাখে কাঠগয়না

থিমভিত্তিক লকেট আর দুলগুলো যেন শুধু তোমাদের জন্যই ডিজাইন করা। উৎসবের দিনে সব সাজ ও সব পোশাকেই মানাবে। এমনকি ক্লাস বা কোচিংয়েও দেখবে খুব স্টাইলিশ। কাঠের গয়নার হালচাল জানাচ্ছেন মারজান ইমু

৮ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



বৈশাখে কাঠগয়না

কফিশপে আড্ডায় মেতে থাকা একদল কিশোরীর গলায় চোখে পড়ল বিশেষ ধরনের গয়না। লম্বাটে, আয়তাকার গোলাকৃতির লকেট ঝুলছে সবার গলায়। কারো লকেটে শিল্পী ফ্রিদার মুখ, কারো আবার রাশিচিহ্ন। মিল একটাই—সব কটাই কাঠের

লকেটের সঙ্গে মিলিয়ে কানের দুলেও একই নকশা। বেশ লাগছে। কাছে গিয়ে প্রশ্ন করতে একজন হেসে জানাল, বন্ধুর জন্মদিনে সবাই এক রকম সেজেছে।

বন্ধুদের একজন রুকাইয়া বিনতে রাফিয়া জানাল, ‘বন্ধুর জন্মদিনের উপহার খুঁজতে গিয়ে অনলাইনে এই গয়না পেয়েছি। পছন্দ হওয়ায় সবার জন্যই অর্ডার করেছি।’ পাশ থেকে সায়মা বলল, ‘কলেজ ড্রেস বা ক্যাজুয়াল পোশাকের সঙ্গে দিব্যি মানিয়ে যায়। দেখতে ছিমছাম আর দেশি ধাঁচের এই গয়না আমাদের বেশ মনে ধরেছে।’

বেশ কয়েকটি অনলাইন শপ ঘুরে দেখা গেল কাঠের গয়নার নানা বৈচিত্র্য। উজ্জ্বল বাহারি রং এই গয়নার মূল আকর্ষণ। ছোট্ট পয়সার আদলে তৈরি লকেট দুল যেমন আছে, একাধিক লহরি মালার সঙ্গে বৈচিত্র্যময় লকেট আর দুলেরও দেখা মিলবে। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই গয়নার মূল উপকরণ কাঠ। কাঠের লকেটে সুতা, ফ্যাব্রিকস, পাট, চামড়া, পুঁতির মালা, রুদ্রাক্ষসহ বিভিন্ন উপকরণের টারসেল জুড়ে দেওয়া হচ্ছে।

অনলাইন গয়না ঘর চিত্রলেখার ডিজাইনার প্রজ্ঞা হক বললেন, ‘আমরা শুধু হ্যান্ড পেইন্টের গয়না ডিজাইন করি। পদ্ম ফুল, কচুরি ফুল, রক্ত গোলাপসহ বিভিন্ন দেশীয় ফুল এই মৌসুমে পছন্দ করছে তরুণীরা। এ ছাড়া রাধাকৃষ্ণ, গৌতম বুদ্ধ, মীরাবাই, ফ্রিদা কাহলোসহ বিভিন্ন চরিত্র নিয়ে কাজ করছি।’ অনলাইন শপ চিহ্ন কাজ করে কাঠের গয়না নিয়ে। স্বত্বাধিকারী মালিহা তাবাসসুম জানালেন, ‘সেমি ক্যাজুয়াল ছিমছাম সাজের কথা মাথায় রেখে নকশা করা হয় কাঠের গয়নায়। রংতুলি, স্ক্রিনপ্রিন্ট, খোদাই বা স্প্রে করে নকশা করা হয়েছে গলার হার, লকেট, কানের দুল ও আংটিতে। আসছে বৈশাখে রিকশা, সিএনজি মোটিফ নিয়ে কাজ করার ইচ্ছা রয়েছে।’ অনলাইন শপ ওয়াও লাইফের স্বত্বাধিকারী আনিকা আনান তাসনিম বললেন, ‘টিনএজারদের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন ধরনের সিরিজ ডিজাইন করেছি। যেমন শার্লক হোমস, ফেলুদা, মিউজিক থিম, গুপিবাঘার পোস্টার। এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধ, পতাকাসহ বিভিন্ন ট্রাইবাল মোটিফ নিয়েও কাজ করেছি। দামও ধরা হয়েছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পকেট মানির কথা মাথায় রেখে।’

 

কাঠের গয়নার যত্ন

আরুণিকার ডিজাইনার অরুণিতা ঘোষাল জানালেন, ‘কাঠের গয়নায় সিনথেটিক ক্লিয়ার বার্নিশ করতে হয়। এ ছাড়া নকশা ও রং দীর্ঘস্থায়ী করতে ডিজাইন শেষে আলাদা কোটিং দেওয়া হয়। এতে পানি লাগলেও ডিজাইন নষ্ট হয় না। বেশিক্ষণ ভেজা অবস্থায় থাকলে কাঠ ফুলে যেতে পারে। বর্ষায় একটু সাবধানে ব্যবহার করা উচিত। ভিজে গেলে সঙ্গে সঙ্গে টিস্যু দিয়ে মুছে নিতে হবে। ব্যবহারের পর তুলা বা টিস্যুতে মুড়িয়ে রাখলে অনেক দিন টিকবে।

 

কেমন দাম, পাবে কোথায়

অনেক বিক্রেতার নাম তো এর মধ্যেই জেনে গেছ। আরো আছে বোকা বাক্স, লহরি, ইশকাপন, ত্রিনিত্রি, সারানা, শখের কারিগরিসহ বেশ কিছু অনলাইন শপ। ফেসবুকের সার্চ অপশনে বাংলায় লিখে সার্চ করলেই সবার পেজ পেয়ে যাবে। হোম ডেলিভারি সুবিধা আছে প্রত্যেকের। বেছে কিনতে চাইলে আড়ং, আইডিয়াস ক্রাফট, যাত্রা বা মাদুলির শোরুমে যেতে পারো। দাম খুব বেশি নয়। ১২০ টাকা থেকে শুরু করে ৮০০ টাকার মধ্যেই পাবে। পছন্দের লকেট, দুল বা আংটি।



মন্তব্য